সংবাদ শিরোনাম
উখিয়ায় বন বিভাগের অভিযানে অবৈধ বালি উত্তোলনের সরঞ্জমাধি উদ্ধারউখিয়ার ডেইলপাড়া করইবনিয়া এলাকা ইয়াবার জোওয়ারে ভাসছেউখিয়ার শীর্ষ ইয়াবা ডন মীর আহম্মদ অধরাহাজীর পাড়ার শীর্ষ ইয়াবা কারবারী মীর আহম্মদকে ধরিয়ে দিনউখিয়ার নুরুল আলমকে গ্রেপ্তারে বেরিয়ে আসবে ইয়াবা ও অস্ত্রসহ গুরুত্বপূর্ণ…থাইংখালী বিট কর্মকর্তার বিরুদ্ধে পাহাড়সম দুর্নীতির অভিযোগউখিয়ায় বন বিভাগের অভিযানে মাটিবর্তী ডাম্পার গাড়ী আটকজালিয়া পালংয়ে ছিনতাইকারীদের হাতে নিঃশ্ব হলেন খামার ব্যবসায়ী – আহত…উখিয়ার শীর্ষ ইয়াবা কারবারী আলী আকবর বিদেশী মদসহ আটকউখিয়ার মুছারখোলা বিট কর্মকর্তা আবছারের নেতৃত্বে পাহাড় কাটা ও বালি…

উখিয়ার আবাসিক এলাকায় সড়ক উন্নয়নের নামে এনজিওর তান্ডব

pic-u1-2.jpg

উখিয়া ক্রাইম নিউজ ডেস্ক:

উখিয়ার ফলিয়াপাড়া গ্রামে সড়ক উন্নয়নের নামে ক্ষতিপয় এনজিও হতদরিদ্র পরিবারের দুটি দোকান ঘর ভেঙ্গে দিয়েছে। এসময় বৈদ্যুতিক খুটি টানা তার ছিড়ে পেলে একটি বাদামী গাছ উপড়ে পেলেছে। ভাংচুর করেছে ইট কংক্রিটের তৈরি স্থাপনা। ভাংচুরকালে গ্রামবাসী বাধা দিলে তারা চেয়ারম্যানের নাম ব্যবহার করলেও স্থানীয় চেয়ারম্যান তা অস্বীকার করে বলেন ডাব্লিউএফপি ক্যাম্প কর্ডিনেটরের নির্দেশে সড়ক সংস্কারের নামে ভাংচুর চালিয়েছে।
স্থানীয় অধিবাসী কক্সবাজার জেলা পরিষদ সদস্য অধ্যাপক হুমায়ুন কবির চৌধুরী জানান, উক্ত এলাকায় ব্রীকসলিন করা সড়ক থাকলেও এনজিও সংস্থা পূর্ব অভিহিত ছাড়া বুলডেজার গাড়ী দিয়ে তার মালিকানাধীন মার্কেটে রোপিত বাদাম গাছের চারি দিকে গড়ে তোলা দৃশ্যমান স্থাপনা ভেঙ্গে দিয়েছে। এতে তার প্রায় ২ লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি হয়েছে।
ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ী মাবিয়া খাতুন(৫৫) ও আকতার মিয়া (৬০) জানান, তারা সেখানে যৎ সামন্য নিত্যপন্য বিক্রি করে জীবন জীবিকা নির্বাহ করছে। সড়ক সংস্কারের নামে এনজিও সংস্থা ডাব্লিউএফপি দোকান ঘর দুটি ভেঙ্গে দেওয়ায় তাদেরকে পরিবার পরিজন নিয়ে অভাব অনটনে দিন কাটাতে হচ্ছে।
এব্যাপারে জানতে চাওয়া হলে রাজাপালং ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরী জানান, তিনি এ বিষয়ে কিছুই জানেন না। তবে যারাই ভাংচুর করুক না কেন ঘটনাটি অত্যান্ত নিন্দনিয়। যেহেতু সেখানে যানবাহন চলাচলেরমত প্রসস্ত যায়গা ও সড়ক থাকা সর্ত্বেও অনর্তক দুটি গরিব মানুষের দোকান ও মার্কেটের সোন্দর্য স্থাপনা নষ্ট করেছে। এব্যাপারে ডাব্লিউএফপির ক্যাম্প কর্মকর্তাদের সাথে কথা বলে তাদের কাছ থেকে সুনির্দিষ্ট কোন তথ্য পাওয়া যায়নি। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ নিকারুজ্জামান জানান, তিনি বিষয়টি জানেন না। তবে খুজ খবর নেওয়া হচ্ছে কোন এনজিও সংস্থা এ কাজটি করছে।

Share this post

scroll to top