মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ০২:১৫ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
জালিয়া পালং বিটে কাঠ পুড়িয়ে কয়লা তৈরির উৎসব — বিট কর্মকর্তা লাখপতি বালুখালী সীমান্তের বুজুরুজ ও রহিমকে গ্রেপ্তারে বেরিয়ে আসবে ভুলু হত্যা ও ইয়াবাসহ গুরুত্বপূর্ণ তথ্য থাইংখালীতে দিবারাত্রি স’ মিলে কাঠ চিরায়ের উৎসবঃ হামলায় আহত – ২ কুতুপালংয়ে রোহিঙ্গা কর্তৃক স্থানীয়দের ধান ক্ষেত নষ্ট সোনার পাড়ায় ইয়াবা কাদের এর হামলায় কলেজ ছাত্র আহত উখিয়ায় ইয়াবা কারবারীর ধারালো দায়ের কূপে আহত মিজান ৫০ হাজার টাকার বিনিময়ে নির্মিত হচ্ছে পাহাড় কেখো ছৈয়দ করিমের স্থাপনা হলদিয়া পালং বিট কর্মকর্তার দুধের গাভী হেডম্যান লাবু ইনানী বনাঞ্চলে জ্বলছে আগুন, পুড়ছে বাগান উখিয়ায় বিট কর্মকর্তা সাজ্জাদের মাসিক মাষোহারায় চলছে অবৈধ স্থাপনা নির্মানের উৎসব

উখিয়ায় ইয়াবা কারবারীর ধারালো দায়ের কূপে আহত মিজান

Spread the love

উখিয়ার রাজাপালংয়ের খালকাছা পাড়া এলাকার চিহ্নিত ইয়াবা কারবারী হেলাল উদ্দিনের ধারালো দায়ের ক’পে মিজান নামের এক যুবক গুরুতর আহত হয়েছে। গতকাল শুক্রবার মিজান জুমার নামাজ পড়ে বাড়ী ফেরার পথিমধ্যে এ হামলার ঘটনাটি ঘটেছে।
এসময় আহতের শোর চিৎকারে নামাজ পড়তে আসা লোকজন এগিয়ে এসে অস্ত্রধারীর কবল থেকে আহতকে উদ্ধার করে উখিয়া সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

থানায় দায়েরকৃত ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে মতে, রাজাপালং গ্রামের মনিরুজ্জামানের ছেলে আবুল হাসানের পৈত্রিক সূত্রে প্রাপ্ত দীর্ঘদিনের ভোগদখলীয় বসতভিটাটি পূর্ব শক্রুতার জের ধরে পরিকল্পিত ভাবে একই গ্রামের সাহাব উদ্দিনের ছেলে এলাকার চিহ্নিত ইয়াবা কারবারী হেলাল উদ্দিনের নেতৃত্বে জাফর আলমের তিন ছেলে ইউনুছ, মোবারক, ইমন ও জাফর আলমসহ একদল অস্ত্রধারীরা দীর্ঘ দিন ধরে উল্লেখিত আবুল হাসানের বসতভিটাটি দখলে নিতে ব্যর্থ হয়ে তার ছেলে মিজানকে ধারালো দা দিয়ে ক’পিয়ে গুরুতর জখম করে বলে জানা গেছে।

উক্ত হামলার সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে আহতের পিতা আবুল হাসান বাদী হয়ে উখিয়া থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন বলে বিষয়টি নিশ্চিত করেন বাদী আবুল হাসান।

স্থানীয় সচেতন মহল ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, এলাকার চিহ্নিত ইয়াবা কারবারী হেলাল উদ্দিন দীর্ঘদিন ধরে মরণ নেশা ইয়াবা ব্যবসার সাথে জড়িয়ে ইয়াবার কালো টাকার পাহাড় গড়ে তোলে উঠতি বয়সী ছাত্র ও যুব- সমাজকে অল্প দিনে কোটিপতির স্বপ্ন দেখিয়ে ইয়াবা পাচারে বাধ্য করার পাশাপাশি এলাকায় নানা অপরাধজনক কর্মকান্ডেরমতো জঘন্য ঘটনা প্রতিনিয়ত ঘটাচ্ছে। তাই অচিরেই ইয়াবা হেলালকে গ্রেপ্তার পূর্বক কঠিন শাস্তির আওতায় নিয়ে আসার জন্য জেলা পুলিশ সুপারের হস্তক্ষেপ কামনা করেন তারা।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


পেইজ