মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ০২:৩৮ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
জালিয়া পালং বিটে কাঠ পুড়িয়ে কয়লা তৈরির উৎসব — বিট কর্মকর্তা লাখপতি বালুখালী সীমান্তের বুজুরুজ ও রহিমকে গ্রেপ্তারে বেরিয়ে আসবে ভুলু হত্যা ও ইয়াবাসহ গুরুত্বপূর্ণ তথ্য থাইংখালীতে দিবারাত্রি স’ মিলে কাঠ চিরায়ের উৎসবঃ হামলায় আহত – ২ কুতুপালংয়ে রোহিঙ্গা কর্তৃক স্থানীয়দের ধান ক্ষেত নষ্ট সোনার পাড়ায় ইয়াবা কাদের এর হামলায় কলেজ ছাত্র আহত উখিয়ায় ইয়াবা কারবারীর ধারালো দায়ের কূপে আহত মিজান ৫০ হাজার টাকার বিনিময়ে নির্মিত হচ্ছে পাহাড় কেখো ছৈয়দ করিমের স্থাপনা হলদিয়া পালং বিট কর্মকর্তার দুধের গাভী হেডম্যান লাবু ইনানী বনাঞ্চলে জ্বলছে আগুন, পুড়ছে বাগান উখিয়ায় বিট কর্মকর্তা সাজ্জাদের মাসিক মাষোহারায় চলছে অবৈধ স্থাপনা নির্মানের উৎসব

উখিয়ার ডেইলপাড়া সীমান্ত হাকিম আলীর দখলে

Spread the love

উখিয়ার পূর্ব – অঞ্চল ডেইলপাড়া সীমান্ত এলাকার ইয়াবার রমরমা বানিজ্য হাকিম আলীর দখলে বলে অভিযোগ উঠেছে। প্রতিনিয়ত বিজিবি জোওয়ানরা ইয়াবা উদ্ধার ও পাচারকারীকে আটক করলেও ধরা ছোঁয়ার বাহিরে ইয়াবার ডিলার হাকিম আলী।
সম্প্রতি ডেইল পাড়া সীমান্ত এলাকা থেকে বিজিবি সদস্যরা অভিযান চালিয়ে ১লাখ ৭০ হাজার ইয়াবা পিস ইয়াবা উদ্ধার করলেও উক্ত ইয়াবার সাথে জড়িত আন্ডার গ্রাউন্ডে থাকা ইয়াবার ডিলার হিসাবে পরিচিত মিয়ানমার ও বাংলাদেশ ভিত্তিক শীর্ষ ইয়াবা কারবারি ডিগলিয়া পালং এলাকায় বসবাসরত রোহিঙ্গা হাকিম আলীকে আটক করতে সক্ষম হয়নি সংশ্লিষ্ট প্রশাসন।
শুধু তাই নয়, হাকিম আলীর নেতৃত্বে একটি সিন্ডিকেট বিজিবির চোখকে ফাঁকি দিয়ে দিবারাত্রি প্রকাশ্যে অস্ত্রের মহড়া দিয়ে মিয়ানমার সীমান্ত জনপদ পেরিয়ে বস্তায় বস্তায় ইয়াবার চালান এদেশে নিয়ে এসে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে পাচার করে হাতিয়ে নিচ্ছে কোটি কোটি টাকা। কিন্তু দেখার কেউ নেই।
স্থানীয় সচেতন মহলের অভিযোগ, সীমান্ত জনপদের রোহিঙ্গা হাকিম আলী সিন্ডিকেটের ইয়াবার সমরাজ্য অচিরেই ধ্বংস করে তাদেরকে আইনের আওতায় নিয়ে আসা না হলে এলাকার উঠতি বয়সী ছাত্র, যুবসমাজ, পরিবেশ ও এলাকার শান্তিশৃংখলা রক্ষা করা কঠিন হয়ে পড়বে। এদের মধ্যে জনপ্রতিনিধি, প্রভাবশালী, রাজনৈতিক নেতারাও উক্ত ইয়াবার সাথে জড়িত রয়েছে।
আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর তথ্যমতে, রোহিঙ্গাদের ইয়াবার অর্থের পুরোটাই দিচ্ছে উখিয়ার প্রভাবশালী কিছু জনপ্রতিনিধি ও রাজনৈতিক ব্যক্তি। তারা সবাই ঐ এলাকার সাবেক বিতর্কিত জনপ্রতিনিধির অনুসারী বলে জানা গেছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


পেইজ