Logo
শিরোনাম :
উখিয়ায় বকেয়া বিদ্যুৎ বিল আদায়ে উপজেলা প্রশাসনের অভিযানে আটক ২ প্রেস ক্লাবে নিজের শরীরে আগুন দেওয়া সেই ব্যবসায়ীকে বাঁচানো গেল না উখিয়ায় অস্ত্রসহ জাহাঙ্গীর ও আলমগীর চৌধুরী গ্রেফতার! উখিয়ায় বকেয়া বিদ্যুৎ বিল আদায়ে উপজেলা প্রশাসনের অভিযান আটক ১ উখিয়ার হরিণমারায় চলছে নির্বিচারে পাহাড় নিধন ঃ বন বিভাগের চোখে কালো চশমা উখিয়া বন রেঞ্জের দুধের গাভী বিট কর্মকর্তা বজলুর রশিদ? কক্সবাজারে অনলাইনে জুয়া, বাড়ছে অপরাধ উখিয়ার হলদিয়া পালংয়ে সন্ত্রাসীদের হামলায় আহত ২ ডেইলপাড়া সীমান্তের ইয়াবা জসিমকে গ্রেপ্তারে বেরিয়ে অস্ত্রসহ গুরুত্বপূর্ণ তথ্য ডেইলপাড়া সীমান্তের ইয়াবা জসিমকে গ্রেপ্তারে বেরিয়ে অস্ত্রসহ গুরুত্বপূর্ণ তথ্য

উখিয়ার হরিণমারায় চলছে নির্বিচারে পাহাড় নিধন ঃ বন বিভাগের চোখে কালো চশমা

রিপোর্টার নাম:
আপডেট সময় : মঙ্গলবার, ১৪ জুন, ২০২২

উখিয়া রেঞ্জের হরিণমারা এলাকায় দিবারাত্রি পাহাড় নিধনের মহোৎসব চলেলও বন বিভাগ চোখে কালো চশমা দিয়ে রয়েছে নিরব দর্শকের ভুমিকায়।
সূত্রমতে, মধ্যম রাজাপালং এর জামাই আব্দুর রশিদ প্রকাশ ইয়াবা রশিদ ও তার চেইন অব কমান্ড হেডম্যান মোহাম্মদের ছেলে শীর্ষ পাহাড় কেখো আবু তাহেরের নেতৃত্বে নুর আহম্মদ প্রকাশ খুইল্যার ছেলে সাহাব উদ্দিন, হরিণমারা বাগানের পাহাড় এলাকার শাহ আলমের ছেলে বাবু ও নুরুল আলম প্রকাশ নুইজ্যার ছেলে হেলালসহ ১০/১৫ জনের একটি বৃহত্তর সিন্ডিকেট সরকারি বনভুমির পাহাড় কেটে ডাম্পার যোগে পাচার করে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়ে বনভুমির পাহাড়কে ধ্বংসযজ্ঞে পরিনত করছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

সরজমিন হরিণমারা এলাকা ঘুরে দেখা যায়, হরিণমারা গ্রামের মালেশিয়া প্রবাসী ছৈয়দ হোসনের স্ত্রী পারভিন আক্তার উল্লেখিত সিন্ডিকেটের সাথে সখ্যতা গড়ে তোলে দিবারাত্রি স্থাপনা ভরাটের মহোৎসব চালিয়ে গেলেও কিন্তু দেখার কেউ নেই।

পরিবেশ বাদীরা বলেন, হরিণমারা এলাকার পাহাড় নিধন সিন্ডিকেটের লোকজন বনভুমির পাহাড়কে টার্গেট করে সরকারি বনভুমিকে বিরান ভুমিতে পরিনত করে যাচ্ছে। এতে ধ্বংস হচ্ছে বন ও পরিবেশ, লাভবান হচ্ছে পাহাড় কেখো সিন্ডিকেট।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক পাহাড় কেখো বলেন, আমরা প্রতি রাতে বন বিভাগকে টাকা দিয়ে পাহাড়ের মাটি পাচার করি। যে দিন পাহাড় কাটবো সে দিন সন্ধায় টাকা না দিলে এমনকি গাড়ী পর্যন্ত বের করা যাবে না। তাছাড়া হেডম্যান মোহাম্মদের বদৌলতে আমরা সুযোগ – সুবিধা একটু বেশি পায়।

দোছড়ি বনবিট কর্মকর্তা দুলাল চন্দ্র হাওলাদারের নিকট জানতে চাইলে তিনি বলেন, ভাই এদের জন্য মামলা দেওয়া আছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর