মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ০২:০৮ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
জালিয়া পালং বিটে কাঠ পুড়িয়ে কয়লা তৈরির উৎসব — বিট কর্মকর্তা লাখপতি বালুখালী সীমান্তের বুজুরুজ ও রহিমকে গ্রেপ্তারে বেরিয়ে আসবে ভুলু হত্যা ও ইয়াবাসহ গুরুত্বপূর্ণ তথ্য থাইংখালীতে দিবারাত্রি স’ মিলে কাঠ চিরায়ের উৎসবঃ হামলায় আহত – ২ কুতুপালংয়ে রোহিঙ্গা কর্তৃক স্থানীয়দের ধান ক্ষেত নষ্ট সোনার পাড়ায় ইয়াবা কাদের এর হামলায় কলেজ ছাত্র আহত উখিয়ায় ইয়াবা কারবারীর ধারালো দায়ের কূপে আহত মিজান ৫০ হাজার টাকার বিনিময়ে নির্মিত হচ্ছে পাহাড় কেখো ছৈয়দ করিমের স্থাপনা হলদিয়া পালং বিট কর্মকর্তার দুধের গাভী হেডম্যান লাবু ইনানী বনাঞ্চলে জ্বলছে আগুন, পুড়ছে বাগান উখিয়ায় বিট কর্মকর্তা সাজ্জাদের মাসিক মাষোহারায় চলছে অবৈধ স্থাপনা নির্মানের উৎসব

উখিয়ায় মাদ্রাসা পড়ুয়া ছাত্রী অপহরণ

Spread the love

উখিয়ার রাজাপালং বায়তুশ শরফ শাহ জাব্বারিয়া বালিকা দাখিল মাদ্রাসার এক দাখিল পরিক্ষার্থীকে অপহরণের অভিযোগ উঠেছে। ২১ নভেম্বর রোববার দুপুরে এ অপহরণের ঘটনাটি ঘটেছে।
থানায় দায়েরকৃত অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার রাজাপালং ইউনিয়নের তুতুরবিল গ্রামের জাফর আলমের দাখির পরিক্ষার্থী মেয়ে ফাতেমা বেগম (১৬) প্রতিদিনের ন্যায় পরিক্ষায় অংশ গ্রহন করতে বাড়ী থেকে বের হয়ে পরিক্ষার হলে আসে। ঠিক সময়ে পরিক্ষার্থী বাড়ীতে না ফেরায় মা- বাবা- ভাই- বোন ও আত্নীয় স্বজনরা অনেক খোজাখুজির পর না পেয়ে মাদ্রাসা প্রাঙ্গনে আসলে প্রত্যক্ষদর্শীর মাধ্যমে জানতে পারে যে তার পরিক্ষর্থী মেয়ে অপহরণের শিকার হয়েছে।
প্রত্যক্ষদর্শী, মোঃ জয়নাল, মোঃ হাছান আলী ও মোঃ রমজান আলী জানান, কক্সবাজার থেকে উখিয়া গামী একটি সিএনজি গাড়ী জাদিমোরা মাদ্রাসা সড়কের সামনে অতির্কিত নেমে একটি মেয়েকে জোরপূর্বক গাড়ীতে করে নিয়ে যাচ্ছিল। এ সময় পেছন থেকে আমরা ধাওয়া করেও গাড়ীটি আটকাতে পারিনি।
অপহ্নত ছাত্রীর পিতা জাফর আলম বলেন, আমার পরিক্ষার্থী মেয়েকে পূর্ব-শক্রুতার জের ধরে চকরিয়া উপজেলার আজিজ নগর এলাকার মোঃ তারেক নামের ছেলেটি অপহরণ করেছে বলে তিনি দাবী করেন। তিনি আরো বলেন, অতি শিঘ্রই আমার মেয়েকে উদ্ধারে জেলা পুলিশ সুপারের হস্তক্ষেপ কামনা করেন তিনি। এ ব্যাপারে অপহ্নত ছাত্রীর বড় ভাই আফাজ উদ্দিন বাদী হয়ে অপহরণের সাথে জড়িত তারেক কে প্রধান আসামী করে উখিয়া থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন জানা গেছে। উখিয়া থানার (ভারপ্রাপ্ত) অফিসার ইনচার্জ গাজী সালাহ উদ্দিন বলেন, অভিযোগটি এখনো আমার হাতে আসেনি, হাতে আসলেই তদন্তপূর্বক জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে তিনি জানান।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


পেইজ