মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ০১:৪৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
জালিয়া পালং বিটে কাঠ পুড়িয়ে কয়লা তৈরির উৎসব — বিট কর্মকর্তা লাখপতি বালুখালী সীমান্তের বুজুরুজ ও রহিমকে গ্রেপ্তারে বেরিয়ে আসবে ভুলু হত্যা ও ইয়াবাসহ গুরুত্বপূর্ণ তথ্য থাইংখালীতে দিবারাত্রি স’ মিলে কাঠ চিরায়ের উৎসবঃ হামলায় আহত – ২ কুতুপালংয়ে রোহিঙ্গা কর্তৃক স্থানীয়দের ধান ক্ষেত নষ্ট সোনার পাড়ায় ইয়াবা কাদের এর হামলায় কলেজ ছাত্র আহত উখিয়ায় ইয়াবা কারবারীর ধারালো দায়ের কূপে আহত মিজান ৫০ হাজার টাকার বিনিময়ে নির্মিত হচ্ছে পাহাড় কেখো ছৈয়দ করিমের স্থাপনা হলদিয়া পালং বিট কর্মকর্তার দুধের গাভী হেডম্যান লাবু ইনানী বনাঞ্চলে জ্বলছে আগুন, পুড়ছে বাগান উখিয়ায় বিট কর্মকর্তা সাজ্জাদের মাসিক মাষোহারায় চলছে অবৈধ স্থাপনা নির্মানের উৎসব

এমপিওভুক্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান জাতীয়করণের দাবি

Spread the love

এমপিওভুক্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো দ্রুত জাতীয়করণের দাবি জানিয়েছে এমপিওভুক্ত শিক্ষক-কর্মচারী জাতীয়করণ প্রত্যাশী মহাজোট।

মঙ্গলবার (৫ অক্টোবর) জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বিশ্ব শিক্ষক দিবস উপলক্ষে এক মানববন্ধন থেকে এ দাবি জানানো হয়।

মানববন্ধনে মহাজোটের যুগ্ম আহ্বায়ক দেলওয়ার হোসেন আজিজী বলেন, ১৯৭৩ সালে ৭৩ দিনের শিক্ষক আন্দোলনের সময় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সরকার মাত্র ৭৮৬ কোটি টাকার বাজেটে ৩৭ হাজার প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণ করেন। এমপিওভুক্ত মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষকদের বেতন ৫০ টাকা থেকে ৭৫ টাকায় উন্নীত করেন এবং উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ে শিক্ষকদের বেতন ১৫০ টাকার উন্নীতকরণসহ রেশনিং ব্যবস্থা চালু করেন।

তিনি বলেন, সে সময় বঙ্গবন্ধু কিছু দিনের মধ্যে মাধ্যমিক শিক্ষা জাতীয়করণ করে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন। ১৯৭৫ সালে বঙ্গবন্ধু হত্যার পর আর এ পর্যন্ত এমপিওভুক্ত শিক্ষকদের জাতীয়করনের দাবি পূরণ হয়নি। তবে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০১৩ সালে আরও ২৬ হাজার প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণ করেন। তাছাড়া বর্তমান সরকার এমপিওভুক্ত শিক্ষক-কর্মচারীদের ২০১৮ সালের জুলাই থেকে বার্ষিক ৫ শতাংশ প্রবৃদ্ধি ও ২০ শতাংশ বৈশাখী ভাতা প্রদান করে আসছেন।

তিনি আরও বলেন, এমপিওভুক্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান জাতীয়করণ করতে বর্তমান সরকারের একটি সিদ্ধান্তের প্রয়োজন। এ সিদ্ধান্ত একমাত্র বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর পক্ষেই নেওয়া সম্ভব। আমাদের বিশ্বাস, বর্তমান সরকার চাইলেই এমপিওভুক্ত শিক্ষা মুজিব বর্ষেই জাতীয়করণ করতে পারেন। আমরা সেটিই দাবি জানাচ্ছি।

মানববন্ধনে আরও উপস্থিত ছিলেন মহাজোটর সদস্য সচিব জসিম উদ্দিন আহম্মদ, মহাজোটের অন্যদের মধ্যে শাহ্ আলম, তালুকদার আব্দুল মন্নাফ, মো. আফজলুর রশিদ, অধ্যক্ষ আফজল হোসেন, বেনী মাধব দেবনাথ প্রমুখ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


পেইজ