সংবাদ শিরোনাম

থাইংখালীর হুমায়ুন শূণ্যে থেকে কোটিপতি

cc.jpg

উখিয়া ক্রাইম নিউজ ডেস্ক::

উখিয়ার সীমান্তবর্তী পালংখালী ইউনিয়নের থাইংখালী হাকিম পাড়া এলাকার হুমায়ুন শ্রমিক থেকে মরণ নেশা ইয়াবা ব্যবসার সাথে জড়িয়ে আজ শূণ্যে থেকে কোটিপতি।
জানা যায়, উপজেলার পালংখালী ইউনিয়নের থাইংখালী হাকিম পাড়া গ্রামের হামিদুল হকের ছেলে হাকিম পাড়া রোহিঙ্গা বস্তির ইয়াবা বাজার ও অপরাধ জগত নিয়ন্ত্রক হুমায়ুন আজ থেকে ৮ বছর আগে পেঠের তাড়নায় আখের গোছানোর জন্য মানুষের ঘরে ঘরে শ্রমিকের কাজ করে আসছিল। সময়ের ব্যবধানে মিয়ানমার ভিত্তিক শীর্ষ ইয়াবা কারবারী চিকুইন্ন্যা ও স্থানীয় ইয়াবা গডফাদারদের সাথে গভীর সর্ম্পক গড়ে তোলেন। নেমে পড়েন পাচার কাজে, সিন্ডিকেটের মাধ্যমে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে হাড়ি হাড়ি ইয়াবা পাচার করে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়ে রাতারাতি আঙ্গুল ফুলে কলা গাছে পরিনত হয়ে হঠাৎ শ্রমিক থেকে কোটিপতির খাতায় নাম লিখিয়েছেন হুমায়ুন। হুমায়ুন প্রকাশ ইয়াবা ইয়াবা হুমায়ুন শ্রমিক থেকে কোটিপতি হওয়ার পর থেকে এলাকার নিরহ লোকজনকে নানা প্রকার অজুহাত দেখিয়ে শারীরিক ও মানষিক নির্যাতন চালিয়ে আসছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। শুধু তাই নয়, এলাকার কেউ তার কথামত ইয়াবার চালান বহন না করলে তাকে শারীরিক ও মানষিক নির্যাতন চালিয়ে বিভিন্ন মামলার ভয়ভীতি প্রদর্শন করে তাদেরকে জিম্মি করে থাকে বলে জানা যায়। তাই এলাকার কেউ তার বিরুদ্ধে কথা বলার সাহস পাই না। স্থানীয় সচেতন মহলের অভিযোগ, হুমায়ুন শ্রমিক থেকে ইয়াবা ব্যবসার সাথে জড়িয়ে হঠাৎ রাতারাতি একাধিক গাড়ী বাড়ি, নারীসহ অঢল সম্পদের মালিক বনে যাওয়ার পর থেকে এলাকায় ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করে যাচ্ছে। অচিরেই উক্ত ইয়াবা হুমায়ুনকে গ্রেপ্তারপূর্বক ইয়াবার কালো টাকার পাহাড় দিয়ে অর্জিত অবৈধ সম্পদ ক্রোক করে তাকে কঠিন শাস্তির আওতায় নিয়ে আসার জন্য চট্রগ্রামস্থ দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) ও জেলা পুলিশ সুপারের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

Share this post

scroll to top