হাত হারানো রাজীবের দাফন নিজ গ্রামে

1253237_kalerkantho_pic.jpg

উখিয়া ক্রাইম নিউজ ডেস্ক::

রাজধানীর বাংলামোটরে দুই বা‌সের প্রতি‌যো‌গিতায় ডান হাত হারানো তিতুমীর কলেজের ছাত্র রাজীব হোসেনের দাফন পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলার নিজ গ্রামে সম্পন্ন হবে বলে জানিয়েছেন হাসপাতালে উপস্থিত রাজীবের মামা ও চাচা। রাজিবের মৃত্যুর খবর পেয়ে রাতেই নিহতের মামা ও চাচা হাসপাতালে উপস্থিত হন। রাজীবের মরদেহ ঢাকা মেডিকেলের মর্গে রাখা হয়েছে। আজ মঙ্গলবার ময়নাতদন্তের পর সব আনুষ্ঠানিকতা শেষে তার মরদেহ পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলার নিজ গ্রামে নিয়ে যাওয়া হবে। সেখানেই রাজীবের দাফন সম্পন্ন হবে।

গত ৩ এপ্রিল রাজধানীর কারওয়ান বাজারে পান্থকুঞ্জ পার্কের সামনে বিআরটিসি বাসের সঙ্গে স্বজন পরিবহনের বাস টক্কর দিতে গেলে বাস দুটির মাঝখানে পড়ে ডান হাত বিচ্ছিন্ন হয়ে যায় রাজীবের। সরকারি তিতুমীর কলেজের স্নাতক দ্বিতীয় বর্ষের এ ছাত্রকে তাৎক্ষণিক নিকটস্থ হাসপাতালে ভর্তি করা হলেও পরদিন ঢামেক হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। সেখানে সরকারের তত্ত্বাবধানে তার চিকিৎসা চলছিলো। গতকাল সোমবার রাত ১২টা ৪০ মিনিটের দিকে ঢাকা মে‌ডি‌কেল ক‌লেজ হাসপাতা‌লে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান রাজীব (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।

ঢাকায় রাজীব হোসেন যাত্রাবাড়ীর মীর হাজিরবাগের একটি মেসে থাকতেন। পড়াশোনা চালাচ্ছিলেন স্বজনদের সহযোগিতায়। রাজীবের মা-বাবা অনেক আগেই মারা গেছেন। তিন ভাইয়ের মধ্যে রাজীব সবার বড়। বাড়ি পটুয়াখালীর বাউফলের দাসপাড়ায়। রাজীব টিউশনি করতেন এবং চাচা, খালাসহ সবার সহযোগিতায় পড়াশোনা চালিয়ে নিচ্ছিলেন।

Share this post

scroll to top