উখিয়ায় পুলিশের তল্লাশির নামে যাত্রী হয়রানির অভিযোগ – দুই ঘন্টা যান চলাচল বন্ধ

pic-ukhiya.jpg

শাকুর মাহমুদ চৌধুরী উখিয়া ::

কক্সবাজারের উখিয়া – টেকনাফ সড়কের উখিয়ার টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজের সামনে পুলিশের অস্থায়ী চেকপোষ্টে তল্লাশির নামে যাত্রী হয়রানির অভিযোগ উঠেছে। উক্ত যাত্রী হয়রানির অভিযোগকে কেন্দ্র করে স্থানীয়রা ক্ষুব্দ হয়ে বুধবার সকাল ১০ টা থেকে বেলা ১২ টা পর্যন্ত সড়কের যান চলাচল বন্ধ করে রাখে।

সরজমিন ঘুরে জানা যায়, কক্সবাজার জেলা পরিষদ সদস্য ও উখিয়া বঙ্গমাতা মজিব মহিলা কলেজের অধ্যাপক হুমায়ুন কবির চৌধুরী গতকাল বুধবার সকালে উপজেলার রাজাপালং ইউনিয়নের কুতুপালং গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য মোহাম্মদ আলী কোম্পানির নামাজে জানাযা শেষ করে সিএনজি যোগে উখিয়া আসার পথে টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজের পুলিশের অস্থায়ী চেকপোষ্টের সামনে পৌছলে চেকপোষ্টে দায়িত্বরত পুলিশ পরিদর্শক আব্দুল মন্নানের নেতৃত্বে সহকারী উপ- পরিদর্শক আমিনুল, সহকারী উপ – পরিদর্শক জয়নাল আবেদীন ও আর্ম পুলিশ মনোরঞ্জনসহ পুলিশ সদস্যরা জেলা পরিষদ সদস্য হুমায়ুন কবির চৌধুরীর গাড়ী থামিয়ে তল্লাশি চালানোর সময় পুলিশকে পরিচয় দেওয়ার পরেও তাকে নাজাহাল করার খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে এলাকাবাসীরা ক্ষুব্দ হয়ে দীর্ঘ দুই ঘন্টা সড়কের যান চলাচল বন্ধ করে দেয়।

স্থানীয়রা অভিযোগ করে বলেন, রোহিঙ্গা নিয়ন্ত্রনের নামে চেকপোষ্টের পুলিশ সদস্যরা স্থানীয় যাত্রীদের হয়রানির পাশাপাশি বিভিন্ন মালবাহী গাড়ী থেকে প্রতিনিয়ত চাঁদা আদায় করে যাচ্ছে। শুধু তাই নয়, রোহিঙ্গাদেরকে আটক করলেও মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে তাদেরকে গন্তব্য স্থানে পৌছার জন্য সহযোগিতাও করে থাকেন।

এসময় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ নিকারুজ্জামান, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক ও ইউপি চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরী ও উখিয়া থানার উপ-পরিদর্শক মিল্টনের নেতৃত্বে একদল পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনার পাশাপাশি পুলিশ কর্মকর্তা ও সদস্যরা জেলা পরিষদ সদস্য হুমায়ুন কবির চৌধুরীর নিকট থেকে ক্ষমা চেয়ে ঘটনার অবসান ঘটে এবং যান চলাচল স্বভাবিক হয় বলে জানা যায়।
এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ নিকারুজ্জামান, যান বাহন থেকে চাঁদা আদায় ও যাত্রী হয়রানির সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য জেলা পুলিশ সুপারকে জানানো হবে বলে তিনি জানান।

Share this post

scroll to top