আবারও উত্তপ্ত দক্ষিণ চীনা সাগর, মুখোমুখি অস্ট্রেলিয়া-চীন

20P.jpg

উখিয়া ক্রাইম নিউজ ডেস্ক::

দক্ষিণ চীন সাগরকে ঘিরে আবারও উত্তজনা ছড়াচ্ছে আন্তর্জাতিক মহলে। বিতর্কিত এই অঞ্জলে অস্ট্রেলীয় নৌবাহিনীর যুদ্ধজাহাজকে বাধা দিয়েছিল চীনের যুদ্ধ জাহাজ। অবশেষে এই ঘটনা স্বীকার করে নিল অস্ট্রেলিয়া। তবে অস্ট্রেলিয়ার পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ‘প্রবল বাধা’ দিলেও চীনা নৌবাহিনী ‘ভদ্র আচরণ করেছে।’

এ ব্যাপারে অস্ট্রেলিয়ার সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, অস্ট্রেলীয় যুদ্ধজাহাজগুলো দক্ষিণ চীন সাগর হয়ে ভিয়েতনামের হো চি মিন শহরে ‘শুভেচ্ছা সফরে’ যাচ্ছিল। অস্ট্রেলিয়া বলেছে, সাগরে বিচরণের স্বাধীনতা তাদের অধিকার, এমনকি সেটা যদি দক্ষিণ চীন সাগর হয় তাহলেও।

অন্যদিকে গার্ডিয়ান জানিয়েছে, অস্ট্রেলিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এই মাসের শুরুতে তাদের তিনটি যুদ্ধজাহাজ এইচএমএএস অ্যানজাক, এইচএমএএস টুউম্বা এবং এইচএমএএস সাকসেসের বাধা পাওয়ার ঘটনাটি স্বীকার করেছে। চীনা নৌবাহিনী দক্ষিণ চীন সাগরে তাদের উপস্থিতিকে ভালোভাবে নেয়নি।

অস্ট্রেলিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় তাদের বিবৃতিতে বলেছে, প্রতিরক্ষাবাহিনী দক্ষিণ চীন সাগরে থাকা দেশগুলোর সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে মিথস্ক্রিয়ারত। দেশগুলোর সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক ও বহুপাক্ষিক সামরিক মহড়া, শুভেচ্ছা সফরে যাওয়া ও সাগরে নজরদারি অভিযান চালানো সেই মিথস্ক্রিয়ারই অংশ। এত বছর ধরে যেমন করে এসেছে, অস্ট্রেলিয়ার নৌ ও বিমান বাহিনী ভবিষ্যতেও ঠিক তেমনই আন্তর্জাতিক আইন মেনে তাদের কার্যক্রম চালিয়ে যাবে।

Share this post

scroll to top