রোহিঙ্গাদের নিরাপদ প্রত্যাবাসনের লক্ষ্যে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ একযোগে কাজ করবে

31430807_710827885974858_7694704175896068096_n.jpg

উখিয়া ক্রাইম নিউজ ডেস্ক::

মিয়ানমারের রাখাইন থেকে প্রাণ বাঁচাতে বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের অবস্থা পর্যবেক্ষণ করতে কক্সবাজার রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরির্দশন করেছে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের ১৫ দেশের প্রতিনিধিসহ ৩০ সদস্যের প্রতিনিধি দল। রবিবার সকালে তারা বান্দরবান জেলার তুমব্রু মিয়ানমার সীমান্ত নোম্যান্স ল্যান্ড পরিদর্শন করেন। ওখানে বসবাস করা রোহিঙ্গাদের সাথে কথা বলেন। এ সময় রোহিঙ্গারা প্রতিনিধি দলকে মিয়ানমার সরকার কর্তৃক তাদের উপর নির্যাতনের বর্ণনা তোলে ধরেন। পরে দুপুর ১২ টার দিকে তারা কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের সাথে কথা বলেন । তারা সাংবাদিকদের বলেন, রোহিঙ্গাদের নিরাপদ প্রত্যাবাসনের লক্ষ্যে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ একযোগে কাজ করবে। রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেয়ায় বাংলাদেশ সরকারের ভূঁয়সী প্রশংসা করেন।
উল্লেখ্য, ৬০-এর দশকে মিয়ানমারে সামরকি জান্তা ক্ষমতা দখল করলে রোহিঙ্গাদের উপর নির্যাতন ও বৈষম্যের খড়গ নেমে আসে। এর ফলশ্রুতিতে ১৯৭৮ সালে প্রথম রোহিঙ্গাদের ঢল আসে বাংলাদেশে। এরপর ১৯৯২ সালে আবার একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি হয়। ২০১২ সালে জাতিগত দাঙ্গার অজুহাতে রোহিঙ্গাদের ওপর নির্যাতনের মাত্রা বেড়ে গেলে হাজার হাজার রোহিঙ্গা বাংলাদেশে পালিয়ে আসতে বাধ্য হয়।
২০১৬ সালে রাখাইনে পুলিশ চৌকিতে হামলার অজুহাতে আবার নতুন করে রোহঙ্গিা নিপীড়ন শুরু হয়। একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটে ২০১৭ সালে। ওই বছররে ২৫ আগস্ট থেেক এ পর্যন্ত প্রায় সাত লাখ রোহিঙ্গা বাংলাদেশে পালিয়ে এসেছে। এর আগে থেকে আরও প্রায় চার লাখ রোহিঙ্গা বাংলাদেশে বসবাস করছে।

Share this post

scroll to top