হিজোলীয়ার শীর্ষ ইয়াবাকারবারী মিরজাফর গ্রেপ্তার এড়াতে ওমান পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা

pic-1.jpg

উখিয়া ক্রাইম নিউজ ডেস্ক::

দেশের চলমান মাদক বিরোধী অভিযানে শনিবার রাতে রাজধানীর উত্তরা থানাধীন ১২ নং সেক্টরের ১১ নম্বর বাসায় অভিযান চালিয়ে ২০ হাজার পিস ইয়াবাসহ উখিয়ার রাজাপালং ইউনিয়নের হরিণমারা গ্রামের ইফতেখারুল ইসলামসহ ৪ জনকে আটক করেছে র‌্যাব ঢাকা। এসময় র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে উক্ত ইয়াবার সাথে জড়িত গডফাদার হিজোলীয়ার মিরজাফর ছিটকে পড়ে গ্রেপ্তারের কবল থেকে অল্পের জন্য রক্ষা পেয়েছে বলে জানা গেছে।
উখিয়া – টেকনাফ সীমান্তের অপরাধ জগত, ও সীমান্তের ইয়াবা ব্যবসা নিয়ন্ত্রক আন্ডার ওয়াল্ড ইয়াবা মাপিয়া নামে খ্যাত আন্ডার গ্রাউন্ডে থাকা রাজাপালং ইউনিয়নের হিজোলীয়া গ্রামের মোঃ শফির ছেলে মিরজাফর প্রকাশ ইয়াবা জাফর গ্রেপ্তার আতংক মাথায় নিয়ে বনে জঙ্গলে ঘুরছে বলে জানা গেছে।

এলাকাবাসীরা জানান, মিরজাফর সামান্য গাড়ী চালক থেকে মরণ নেশা ইয়াবা ব্যবসার সাথে জড়িয়ে আজ শূণ্যে থেকে কোটিপতির খাতায় নাম লিখিয়ে এলাকার সাধারন খেটে খাওয়া মানুষকে শারীরিক ও মানষিক নির্যাতনের পাশাপাশি ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করে যাচ্ছে। শুধু তাই নাই, সম্প্রতি মিরজাফর ট্রাকবর্তী ইয়াবার কোটি টাকার চালান নিয়ে চট্রগ্রামস্থ নতুন ব্রীজ এলাকায় চট্রগ্রাম ডিবি পুলিশের হাতে আটক হয়ে দীর্ঘ দিন জেল হাজত শেষে জামিনে বের হয়ে ফের ইয়াবা পাচারে বেপরোয়া হয়ে উঠেছে বলেও জানা গেছে। নির্ভযোগ্য সূত্র মতে, বর্তমানে এনজিও সংস্থা ব্র্যাক এর সাথে আতাঁত করে ক্যাম্পে ঠিকাদারী কাজ করার নাম ব্যবহার করে ক্যাম্প ভিত্তিক ইয়াবা সিন্ডিকেটের সাথে গভীর সখ্যাত গড়ে তোলে সিন্ডিকেটের মাধ্যমে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে পাচার করছে হাড়ি হাড়ি ইয়াবা। হাতিয়ে নিচ্ছে কোটি কোটি টাকা। কিন্তু দেখার কেউ নেই।
স্থানীয় সচেতন মহলরা বলেন, দেশের চলমান মাদক বিরোধী অভিযানকে বৃদ্ধঙ্গুলি দেখিয়ে ইয়াবা জাফর পাচার কাজে আরো বেপরোয়া হয়ে কৌশলে এলাকার উঠতি বয়সী যুবতীদেরকেও ইয়াবা সেবনে অব্যস্ত করে আসছে। তাই অতি শিঘ্রই ইয়াবা জাফরকে গ্রেপ্তার পূর্বক কঠিন শাস্তির আওতায় নিয়ে এসে দেশকে মাদক ও কলংকমুক্ত করার জন্য বাংলাদেশ সরকারের সফল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

Share this post

scroll to top