গাজীপুরে বাসচাপায় নারী শ্রমিক নিহত

2-2.jpg

মুহাম্মদ আতিকুর রহমান আতিক গাজীপুর জেলা প্রতিনিধি ::

গাজীপুরে বাসের চাপায় মনোয়ারা আক্তার (২২) নামের এক নারী পোশাক শ্রমিক নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় উত্তেজিত জনতা ওই বাসে অগ্নিসংযোগ করেছে।

১৪ জুলাই শনিবার রাত সোয়া ৮টার দিকে গাজীপুর মহানগরের ভোগড়া এলাকার বর্ষা সিনেমা হলের উত্তরে পাশে এ ঘটনাটি ঘটে। নিহত মনোয়ারা শেরপুর জেলার শ্রীবরদী থানা এলাকার মতিউর রহমানের মেয়ে।

নাওজোর হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির এসআই মোঃ অহিদুজ্জামান জানান, নিহত পোশাক শ্রমিক মনোয়ারা আক্তার চান্দনা চৌরাস্তা এলাকায় বাসা ভাড়া থেকে স্থানীয় ক্যাপিটাল ফ্যাশন লিমিটেড নামে একটি পোশাক কারখানায় চাকরি করতো। শনিবার রাতে কারখানা ছুটির পর বাসায় ফিরার পথে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক পার হওয়ার সময় বসুমতি পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাস তাকে চাপায় দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই তিনি মারা যান। পরে উত্তেজিত জনতা ওই বাসটি আটক করে আগুন লাগিয়ে দেয়। ওই সময় বাসের চালক ও সহকারী কৌশলে পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে জয়দেবপুর ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে গিয়ে বাসের আগুন নেভায়। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে গাজীপুরের শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

জয়দেবপুর ফায়ার সার্ভিসের সিনিয়র স্টেশন অফিসার মোঃ জাকির হোসেন বলেন, ভোগড়া এলাকার বর্ষা সিনেমা হলের উত্তরে পাশে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক পার হতে গিয়ে ঢাকাগামী বসুমতি পরিবহনের বাস এক নারী শ্রমিককে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলে তিনি নিহত হন। বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা বাসটিকে আটক করে অগ্নিসংযোগ করে। পরে জয়দেবপুর ফায়ার সার্ভিসের দুইটি ইউনিট এবং নাওজোর হাইওয়ে পুলিশ গিয়ে প্রায় আধাঘণ্টার চেষ্টায় আগুন নেভায়। বাসের ভেতরের সিটগুলো পুড়ে গেছে। তবে কেউ দগ্ধ হয়নি।

Share this post

scroll to top