আওয়ামীলীগ ও জাতীয় পার্টিতে একাধিক বিএনপির একক প্রার্থী

pic-11-2.jpg

উখিয়া ক্রাইম নিউজ ডেস্ক::

দেশের সর্বদক্ষিনের উপজেলা শহর উখিয়া ও টেকনাফ উপজেলা নিয়ে গঠিত কক্সবাজার ৪ আসনের বর্তমান সংসদ আব্দুর রহমান বদিসহ একাধিক হেভিওয়েট প্রার্থী আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশায় কেন্দ্রীয় পর্যায়ে দৌড়ঝাপ ও লভিং, তদবির নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছে। পাশাপাশি মাঠে ময়দানে ভোটারদের মনজয় করার জন্য ওঠান বৈঠক থেকে শুরু করে মাঠ চষে বেড়ালেও এ আসনে নৌকার পাল কে ধরবে তা এখনো কেউ নিশ্চিত নয়। ততাপিও নবীন প্রার্থীরা সভা সমাবেশ,মতবিনিময়, প্রধানমন্ত্রীর উন্নয়ন কর্মকান্ড সম্বলিত লিফলেট বিতরনসহ স্থানীয় সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় করে তাদের লেখনির মাধ্যমে সহযোগিতা কামনা করছে। এ ফাকে বিএনপি ও জাতীয় পার্টি একক প্রার্থী মাঠে ময়দানে প্রচার অভিযানে সুবিধাজনক স্থানে রয়েছে বলে অনেকেই মনে করছেন।
উখিয়া টেকনাফ আওয়ামীলীগ ও তার অংগ সংগঠনের নেতাকর্মীদের সাথে আলাপ করে জানা যায়, এ আসনে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী হয়ে নির্বাচনী প্রচারনা চালিয়ে যাচ্ছে একাধিক নবীন প্রার্থী। তৎমধ্যে অন্যতম উখিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি, উখিয়া মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ হামিদুল হক চৌধুরী, তৎকালিন পাক আমলের ৭ থানা থেকে নির্বাচিত এমপি মরহুম এডঃ নুর আহম্মদের উত্তরসূরী, কক্সবাজার জেলা যুবলীগের সভাপতি, বর্ণাঢ্য রাজনীতিবীদ সোহেল আহম্মদ বাহাদুর, উখিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক, রাজাপালং ইউনিয়ন পরিষদের দুই দুই বারের নির্বাচিত সফল চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরী, বাংলাদেশ তাতীঁলীগের কার্যকরী সভাপতি ও জাতীয় সমবায় সমিতি লিমিটেডের চেয়ারম্যান শ্রীমতি সাধনা দাশ গুপ্তা, হলদিয়াপালং ইউনিয়নের চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ শাহ আলম, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা মেজর (অবঃ) আবু তাহের, টেকনাফ উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি অধ্যক্ষ মোঃ আলী, সাধারন সম্পাদক নুরুল বশর ও বর্তমান উখিয়া টেকনাফ আসনের সংসদ সদস্য আব্দুর রহমান বদি।
দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে উখিয়া টেকনাফ আসন থেকে মহাজোটের মনোনীত প্রার্থী কক্সবাজারের শীর্ষ স্থানীয় দৈনিক আজকের দেশবিদেশ পত্রিকার সম্পাদক মন্ডলির সভাপতি আলহাজ¦ আনিসুল ইসলাম ইয়াহিয়ার উত্তরসূরী বিশিষ্ট শিল্পপতি তাহা ইয়াহিয়া এবারো মহাজোট থেকে মনোনয়ন পাচ্ছেন বলে সাংবাদিকদের নিশ্চিত করেছেন। এদিকে জাতীয় পার্টির আরেক সম্ভব্য প্রার্থী নুরুল আমিন সিকদার ভুট্রোর সাথে আলাপ করা হলে তিনি জানান, মহাজোটের শরিকদল হিসাবে জাতীয় পার্টি উখিয়া টেকনাফ আসনটি দাবী করছে। সেহেতু এ আসনে জাতীয় পার্টি থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশী হয়ে তিনি দীর্ঘ দিন যাবৎ সমাজসেবা মূলক কাজ করে আসছে। তিনি মনে করেন মহাজোট সরকার যদি এ আসনটি ছাড়দে তা হলে তার মনোনয়ন নিশ্চিত।
উখিয়া টেকনাফ আসনে পর পর চারবার নির্বাচিত জাতীয় সংসদ সদস্য ও কক্সবাজার জেলা বিএনপির সভাপতি স্বার্থহীন রাজনীতিবীদ সাবেক হুইপ আলহাজ¦ শাহ জাহান চৌধুরী জানান, বিএনপি থেকে তার মনোনয়ন নিশ্চিত করা হয়েছে। যদি তার দল আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ গ্রহন করে এবং নিরপক্ষ অবাধ সুষ্ট নির্বাচন অনুষ্টিত হলে এ আসনে তিনি আবারো সংসদ সদস্য নির্বাচিত হবেন। যেহেতু বর্তমান সরকারের চোখে বিরোধীদল হলেও তিনি যে একজন স্বচ্ছ রাজনীতিবীদ প্রমানিত হয়েছে এ কারনে তার বিরুদ্ধে এপর্যন্ত রাষ্ট্রবিরোধী কোন মামলা হয়নি। তাই বিএনপির হাইকমান্ড এ আসনে তাকে একক প্রার্থী ঘোষনা করেছে।
সরকারি দল হিসাবে আওয়ামীলীগের নবীন প্রার্থীরা নির্বাচনী প্রচারনা অনেকটা এগিয়ে আছে দাবী করে উখিয়া উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মুজিবুল হক আজাদ জানান, বর্তমান সরকারের বহুমুখী উন্নয়ন কর্মকান্ড নিয়ে সাধারন জনগন আওয়ামীলীগের দিকে ঝুকেছে। নির্বাচনের দিন যতই ঘনিয়ে আসবে সমর্থক কর্মী ভোটারদের সংখ্যা বাড়বে বৈ কমবেনা। মঙ্গলবার বেলা ১১ টার দিকে উখিয়া প্রেসক্লাবে আয়োজিত মতবিনিময় সভায় উখিয়া টেকনাফ আসনের সম্ভাব্য আওয়ামীলীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী জেলা যুবলীগের সভাপতি সোহেল আহম্মদ বাহাদুর সাংবাদিকদের উদ্দেশ্য বলেন, তার মরহুম পিতা একজন রাজনীতিবীদ ছিলেন। তারই ঔরষজাত সন্তান হিসাবে তিনি রাজনীতির মাধ্যমে নিজেকে গড়ে তোলেছেন। কেন্দ্রীয় হাইকমান্ডের নির্দেশমত তিনি তার সংসদীয় এলাকায় নির্বাচনী প্রচারনা শুরু করেছেন। যদিওবা মনোনয়ন দেওয়ার একমাত্র মালিক জননেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি তার প্রচারনায় সাংবাদিকদের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেন। এর আগে বাংলাদেশ তাঁতীলীগের কার্যকরী সভাপতি ও জাতীয় সমবায় সমিতির চেয়ারম্যান শ্রীমতি সাধনা দাশ গুপ্তা সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় করে বলেন, ইয়াবার কারনে উখিয়া টেকনাফের শান্তি প্রিয় জনগন যে দর্নামু কাঁদে বয়ে বেড়াচ্ছে তা থেকে মুক্ত করে একটি মডেল সংসদীয় এলাকায় রূপান্তর করার জন্য নেত্রীর নির্দেশে তিনি মাঠে ময়দানে নির্বাচনী প্রচারনা অব্যাহত রেখেছেন। তবে আওয়ামীলীগের নীতি নির্ধারকরা জানান, এ আসনে আওয়ামীলীগের হাল কে ধরছেন তা এখনো নিশ্চিত নয়।

Share this post

scroll to top