সংবাদ শিরোনাম
উখিয়ার ক্যাম্প থেকে ভাসানচরের উদ্দেশে রওনা হয়েছে রোহিঙ্গাদের বিশাল বহররামু সেনানিবাসে ৪ ইউনিটের পতাকা উত্তোলন করলেন সেনা প্রধানউখিয়ায় একাধিক মামলার আসামি রফিকুল হুদা আটক২ লাখ ৮০ হাজার ইয়াবাসহ মিয়ানমারের ৭ নাগরিক আটককক্সবাজার সড়কে বাস ডাকাতির ঘটনায় গ্রেপ্তার ৬নাইজেরিয়ায় ১১০ কৃষকের গলা কেটে বর্বর হত্যাকাণ্ডউখিয়া প্রেসক্লাব নির্বাচনের প্রার্থীদের তালিকা চুড়ান্ত, বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত ১উখিয়ায় বন বিভাগের অভিযানে অজগর সাপ উদ্ধারউখিয়ায় বন বিভাগের অভিযানে ৪টি অবৈধ ড্রেজার মেশিন ও ১৪টি…রোহিঙ্গা সুরক্ষায় নির্দেশনা অনুযায়ী আদালতে মিয়ানমারের দ্বিতীয় প্রতিবেদন

আমি কৃষকের সন্তান, শৈশব ভুলে যাইনি : রাষ্ট্রপতি

image-52010-1537984026.jpg

আমি কৃষকের সন্তান, শৈশব ভুলে যাইনি : রাষ্ট্রপতি

উখিয়া ক্রাইম নিউজ ডেস্ক::

আমি একজন কৃষকের সন্তান। রাষ্ট্রপতি হয়েও আমি আমার শৈশবের স্মৃতি ভুলে যাইনি। কেউ যদি তার মূল ভুলে যায়, তাহলে সে প্রকৃত মানুষ না। বললেন রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ।পাঁচদিনের কিশোরগঞ্জ সফরের তৃতীয় দিন আজ বুধবার মিঠামইনে এক জনসভায় রাষ্ট্রপতি এসব কথা বলেন।গত এপ্রিলে দ্বিতীয় মেয়াদের জন্য তিনি রাষ্ট্রপতি নির্বাচিত হওয়ায় মিঠামইন উপজেলা পরিষদ স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধা আবদুল হক সরকারি কলেজ মাঠে এ সংবর্ধনার আয়োজন করা হয়।তিনি বলেন, আমি রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ, আপনারা জনগণই আমাকে ভোট দিয়ে আটবার সংসদ সদস্য নির্বাচিত করেছিলেন। আমি আমার সাধ্যমত হাওর অঞ্চল তথা সারা দেশের উন্নয়ন নিশ্চিত করার চেষ্টা করছি।রাষ্ট্রপতি বলেন, যারা নিজেদের স্বার্থসিদ্ধির জন্য রাজনীতি করে তাদেরকে ভোট দেবেন না। বাংলাদেশের সব জনগণকে এ বিষয়টি নিয়ে ভাবতে হবে।যেসব প্রার্থী নিজেদের স্বার্থকে প্রাধান্য দেয় এবং জনগণের প্রতারণা করে তাদেরকে নির্বাচিত না করার জন্য রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ জনগণের প্রতি আহ্বান জানান।মিঠামইন উপজেলা চেয়ারম্যান মো. আবদুস শহীদ ভূঁইয়ার সভাপতিত্বে এ অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন কিশোরগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার রেজওয়ান আহাম্মদ তৌফিক, কিশোরগঞ্জ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট মো. জিল্লুর রহমান, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা এ্যাডভোকেট এম এ আফজাল, কলেজের অধ্যক্ষ বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আবদুল হকসহ আরও অনেকে।এর আগে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ মিঠামইন মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবন, মিঠামইন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ৩৩ থেকে ৫১ শয্যায় উন্নতিকরণসহ মোট ৬টি প্রকল্পের উদ্বোধন করেন।

Share this post

scroll to top