উখিয়ায় কোষ্টের চাকুরী হারিয়ে ২১ যুবকের আহাজারি

images-4.jpg

উখিয়া ক্রাইম নিউজ ডেস্ক::

উখিয়ার ২০টি রোহিঙ্গা শরনার্থী ক্যাম্পে আশ্রীত প্রায় ৮ লক্ষাধিক রোহিঙ্গার মানবিক সেবায় নিয়োজিত এনজিও সংস্থা কোষ্টট্রাষ্টের স্বজনপ্রীতি ও নিয়োগ বানিজ্যর গ্যাড়াকলে পড়ে রোহিঙ্গা অধ্যুষিত এলাকার ২১ জন উচ্চ শিক্ষিত বেকার ছেলে মেয়ে চাকুরী হারিয়ে মানষিক ভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়ে। এসব ছেলে মেয়েদের চাকুরীতে বহাল রাখার জন্য উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কড়া নির্দেশ থাকলেও তা উপেক্ষা করে সংশ্লিষ্টরা নিয়োগ বানিজ্যের মাধ্যমে স্বজনদের চাকুরীতে নিয়োগ দেওয়ার প্রক্রিয়া চালাচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এঘটনা নিয়ে চাকুরী হারা ছেলে মেয়ে, তাদের অভিভাবক তথা উখিয়া অঞ্চলের রাজনীতিবীদরা সোচ্ছার হয়ে উঠেছে। অবিলম্বে তাদের পূর্নবহাল বা যে কোন প্রজেক্টে নিয়োগ না দিলে আন্দোলনের কর্মসূচি ঘোষনা করেছে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন সংগ্রাম কমিটির নেতৃবৃন্ধুরা।
কর্মজীবি আব্দুল কায়েসসহ ২১জন চাকুরীচ্যুত ছেলে মেয়েদের অভিযোগ, তারা জানুয়ারী থেকে ৩১ জুলাই ২০১৮ইং পর্যন্ত কোষ্ট ট্রাষ্টের অধীনে উখিয়ার বিভিন্ন ক্যাম্পে আউট রিচ ওয়ার্কার হিসাবে দায়িত্ব পালন করেছে। উক্ত প্রজেক্টের মেয়াদ শেষ হওয়ার কথা বলে কোষ্টের কক্সবাজার টিম লিডার জাহাঙ্গীর তাদেরকে আশ^স্থ করে প্রজেক্ট এক্সটেনশন হলে পূনরায় চাকুরীতে পূর্নবহাল করা হবে মর্মে চাকুরীচ্যুত ছেলে মেয়েদের যাবতীয় মূল কাজপত্র রেখেদে। ৩ সেপ্টেম্বর উক্ত প্রজেক্টের মেয়াদ বর্ধিত করা হলেও ভুক্তভোগী ছেলে মেয়েদের জানানো হয়নি। উপরোন্ত ১৯ সেপ্টেম্বর কোষ্টের প্রজেক্ট ম্যানেজার জান্নাতুল ফেরদৌস মুটোফোনে জানিয়ে দেয় স্থানীয় ওইসব ছেলে মেয়েদের স্থায়ী ভাবে চাকুরীচ্যুত করা হয়েছে। এব্যাপারে ক্ষতিগ্রস্থ চাকুরী হারা বেকার ছেলে মেয়েরা অনোন্যপায় হয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নিকট একটি লিখিত অভিযোগ করেন। এব্যাপারে জানতে চাওয়া হলে ইউএনও মোঃ নিকারুজ্জামান বলেন, আজ বৃহস্পতিবার বিকাল ৪ টার দিকে অভিযুক্ত কোষ্ট ট্রাষ্টের কর্মকর্তা ও চাকুরী হারা ছেলে মেয়েদের নিয়ে বৈঠকের মাধ্যমে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। যাতে ছেলে মেয়েরা চাকুরীতে যোগদান করার সুযোগ পায়। এব্যাপারে কক্সবাজারস্থ কোষ্টের টিম লিডার জাহাঙ্গীরের সাথে বেশ কয়েকবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করলেও তিনি ফোন ধরেননি। রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন কমিটির নেতা নুর মোহাম্মদ সিকদার জানান, ওইসব যুবকদের চাকুরীতে পূর্নবহাল করা না হলে কঠোর কর্মসূচি দেওয়া হবে।

Share this post

scroll to top