স্থানীয়দের সবরকম সহায়তা দেওয়া হবে: উখিয়ায় ত্রাণ কমিশনার

43056123_2684297065129100_6153711378000510976_n.jpg

উখিয়া ক্রাইম নিউজ ডেস্ক::

শরনার্থী ত্রান ও প্রত্যাবাসন কমিশনার আবুল কালাম বলেছেন, রোহিঙ্গাদের জায়গা দিয়ে উখিয়া – টেকনাফের স্থানীয় জনগন মানবতার অনন্য নজির স্থাপন করেছে। তাই স্থানীয় জনগনের জন্য সরকারও এনজিও গুলোর পক্ষ থেকে সব রকমের সহায়তা দেওয়া হবে।মঙ্গলবার সকালে উখিয়ার রাজাপালং ইউনিয়নের ফলিয়াপাড়া আলিমুদ্দিন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে এক উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন। উখিয়া উপজেলা প্রশাসনের সার্বিক ব্যবস্থাপনায় এনজিও সংস্থা কারিতাস বাংলাদেশ কতৃক স্থানীয় জনগোষ্ঠীর মাঝে চুলাসহ এলপিজি গ্যাস সিলিন্ডার বিতরণ উপলক্ষে এই অনুষ্ঠনের আয়োজন করা হয়।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে আবুল কালাম বলেন, বর্তমান সরকারের প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা স্থানীয় জনগনের প্রতি খুবই আন্তরিক। তিনি স্থানীয়দের সমস্যা সম্পর্কে অবগত আছেন। তাই স্থানীয়দের সহায়তায় বেশ কিছু প্রকল্প হাতে নিয়েছে সরকার। পর্যায়ক্রমে তা বাস্তবায়ন করা হবে।

কারিতাসের কক্সবাজার আঞ্চলিক প্রধান মাজহারুল ইসলাম জানান, তারা রোহিঙ্গাদের পাশাপাশি স্থানীয় জনগণের জন্য কাজ করে যাচ্ছে। রাজাপালং ইউনিয়নের ৬৫০ পরিবারের মধ্যে চুলাসহ এলপিজি গ্যাস সিলিন্ডার বিতরণকাজ শুরু করা ছাড়াও উপজেলার রাজাপালং,রত্নাপালং ও হলদিয়া পালং ইউনিয়নে ৫০টি সোলার স্ট্রিট লাইট স্থাপন করা হবে।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও রাজাপালং ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জাহাংগীর কবির চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্টিত সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন উখিয়ার ইউএনও নিকারুজ্জামান চৌধুরী,উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অধ্যক্ষ হামিদুল হক চৌধুরী,কারিতাসের চট্রগ্রামের অঞ্চলিক প্রধান জেমস্ গোমেজ,উখিয়া প্রেসক্লাবের সভাপতি সরওয়ার আলম শাহীনসহ কারিতাসের বিভিন্ন স্তরের কর্মকর্তাবৃন্দ।

Share this post

scroll to top