উন্নয়ন-অগ্রগতির জন্য নৌকার বিকল্প নেই – এমপি কমল

mp.jpg

উখিয়া ক্রাইম নিউজ ডেস্ক::

কক্সবাজার -৩ (সদর-রামু) আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব সাইমুম সরওয়ার কমল বলেছেন, দেশের উন্নয়ন অগ্রগতির জন্য নৌকার বিকল্প নেই। বিএনপি জামাত জোটের অনিয়ম-দূর্ণীতির কারণে এদেশ অনেক পিছিয়ে গিয়েছিলো। আওয়ামীলীগ নেতৃত্বাধিন সরকার স্বল্প সময়ে বাংলাদেশকে বিশে^র একটি উন্নয়নশীল দেশে পরিনত করেছে। বিদ্যুৎ, শিক্ষা, স্বাস্থ্য, যোগাযোগ ব্যবস্থাসহ সবক্ষেত্রে সরকারের উন্নয়নের সুফল মানুষ ভোগ করছে। লোডশেড়িং এর তীব্র যন্ত্রণা এখন আর নেই। উল্টো দূর্গম এলাকাও মানুষের ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছে গেছে। মানুষের জীবন যাত্রার মান ও আয় বৃদ্ধি পাওয়ায় এখন কাউকে না খেয়ে থাকতে হয় না। একজন রিক্সাচালকও এখন পরিবার-পরিজন নিয়ে স্বাবলম্বী হয়ে জীবন-যাপন করতে পারে। গণমানুষের কল্যাণে সরকার নিবেদিতপ্রাণ হয়ে কাজ করছে।

তিনি বলেন, কক্সবাজার-রামুতে এখন হাজার কোটি টাকার মেঘা প্রকল্পের কাজ শুরু হয়েছে। এখানে রেল লাইনের কাজ শুরু হয়েছে। এর জংশন হচ্ছে রামুতেই। এসব কাজ শেষ হলে রামুতে সীমান্ত বাণিজ্য বেড়ে যাবে। এখানে হাজার হাজার মানুষের কর্মসংস্থান হবে। সরকারের এসব উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষায় আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নৌকা প্রতীকে ভোট দিয়ে জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকারকে আবারো রাষ্ট্রক্ষমতায় অধিষ্ঠিত করতে হবে।

এমপি সাইমুম সরওয়ার কমল রামু উপজেলার খুনিয়াপালং ইউনিয়নের দারিয়ারদিঘী আশ্রয়ন কেন্দ্রে বিদ্যুতায়ন শুভ উদ্বোধন এবং মৌলভী বাজার সহ একাধিক এলাকায় মহিলা ও উঠোন সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

মঙ্গলবার (২ অক্টোবর) বিকাল ৩টায় বিদ্যুতায়ন কার্যক্রম উদ্বোধন শেষে আয়োজিত সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন, ১ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ সভাপতি হাজ¦ী রশিদ আহমদ। সন্ধ্যা সাতটায় আবু তাহের মেম্বারের উঠোনে আয়োজিত মহিলা সমাবেশ পরিনত হয় বিশাল জনসমাবেশে। খুনিয়াপালং ইউনিয়ন পরিষদের মেম্বার আবু তাহের এতে সভাপতিত্ব করেন। সমাবেশে স্বাগত বক্তব্য রাখেন, খুনিয়াপপালং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সাংবাদিক আবদুল মাবুদ।

এতে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, কক্সবাজার জেলা আওয়ামীলীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদক মুসরাত জাহান মুন্নী, কক্সবাজার জেলা পরিষদ সদস্য ও সাবেক চেয়ারম্যান শামসুল আলম, খুনিয়াপালং ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি আবদুল গফুর, সাধারণ সম্পাদ মোহাম্মদ আবদুল্লাহ সিকদার, দানবীর হাজ¦ী ফরিদ আহমদ, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি কবির আহমদ, আওয়ামীলীগ নেতা হাজ¦ী ছাব্বির আহমদ, মৌলানা মোস্তাফিজুর রহমান, নুরুল হক ম্যানেজার, সমাজসেবক নুরুল ইসলাম, ইউপি সদস্য মো. ফইজুল্লাহ ও মোহাম্মদ কামাল, সাইফুল ইসলাম, ইউনিয়ন ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক আবদুল কাদের, কৃষকলীগ নেতা ওসমান সরওয়ার আলম, জসিম উদ্দিন, আজিজুল হক প্রমূখ।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে জেলা আওয়ামীলীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদক মুসরাত জাহান মুন্নী বলেন, এমপি কমলের যোগ্য নেতৃত্বে রামুতে উন্নয়নের ছোঁয়া লেগেছে। গ্রামে গ্রামে বিদ্যুতায়ন, সড়ক-সেতু নির্মাণ, শিক্ষাক্ষেত্রে আমূল পরিবর্তন হয়েছে। তাই আগামী নির্বাচনে নারী সমাজকে এমপি কমলকে বিজয়ী করার জন্য ভুমিকা রাখতে হবে। তিনি আরো বলেন, বর্তমান সরকার নারী বান্ধব সরকার। তাই নারীদের ক্ষমতায়ন সহ বিভিন্নভাবে নারীদের কল্যাণে কাজ করছে।

সভাপতির বক্তব্যে খুনিয়াপালং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সাংবাদিক আবদুল মাবুদ বলেন, এমপি কমলের বলিষ্ঠ নেতৃত্বে কক্সবাজার-রামুতে স্মরণকালের সবচেয়ে বেশী উন্নয়ন কর্মকান্ড বাস্তবায়ন হয়েছে। এলাকার উন্নয়ন আর মানুষের কল্যাণে অতীতে এভাবে ভুমিকা রাখেনি। তাই আগামীতেও খুনিয়াপালংবাসী স্বতঃস্ফূর্তভাবে এমপি কমলকে নৌকা প্রতীকে ভোট দিয়ে বিজয়ী করার জন্য কাজ করে যাবে ।

একইদিন রাত দশটায় এমপি কমল খুনিয়াপালং ইউনিয়নের থোয়াইগ্যাকাটা কালুর দোকান স্টেশনে পথ সভা এবং রাত ১১টায় কক্সবাজারের আলীর জাহাল স্টেশনে একটি শ্রমিক সমাবেশে বক্তব্য রাখেন। এসব সমাবেশে আওয়ামীলীগ ও অঙ্গসংগঠনের বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী সহ সর্বস্তুরের হাজার হাজার জনতা উপস্থিত ছিলেন।

Share this post

scroll to top