সংবাদ শিরোনাম

যুক্তরাষ্ট্রের প্রত্যাশা রোহিঙ্গারা নিরাপত্তার সঙ্গে স্বদেশে ফিরে যাবে

pic-ukhiya-1-3.jpg

রফিক উদিন বাবুল উখিয়া ::

যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিন ও মধ্য এশিয়া বিষয়ক উপসহকারী মন্ত্রী এলিস ওয়েলস বলেছেন, বাংলাদেশে আশ্রিত রোহিঙ্গারা তাদের নাগরিক অধিকার ও নিরাপত্তার সঙ্গে মিয়ানমারে ফিরে যাওয়ার প্রত্যাশা করছে যুক্তরাষ্ট্র। বাংলাদেশ সরকারের আহবানে সাড়া দিয়ে আর্ন্তজাতিক সম্প্রদায়ী সমন্বয়ের মাধ্যমে এক যোগে কাজ করছে রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধান করতে। সোমবার বিকালে উখিয়ার কুতুপালং ট্রানজিট ক্যাম্প পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে ওই মার্কিন মন্ত্রী এসব কথা বলেন। তিনি আরো বলেন, রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে মিয়ানমারের উপর যুক্তরাষ্ট্র সরকারের চাপ অব্যাহত রয়েছে। পাশাপাশি আর্ন্তজাতিক বিশ্ব রোহিঙ্গা সংকট নিরসনে নেপিডোর উপর বিভিন্ন উপায়ে চাপ দিয়ে যাচ্ছে। যার ফলে মিয়ানমার বাধ্য হয়েছে রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নেওয়ার নিরাপদ পরিবেশ তৈরি করতে। দুপুর আড়াইটা থেকে সাড়ে ৩ টা পর্যন্ত কুতুপালং ওয়ান ইষ্ট ব্লকে ব্র্যাক পরিচালিত ১৪টি প্রকল্পের কাজ পরিদর্শন করেন উপসহকারী মন্ত্রী। এসময় তিনি ব্র্যাক কর্মকর্তাদের সাথে কথা বলে তাদের কাজের সন্তোষ প্রকাশ করেন। এর আগে সকালে বাংলাদেশ মিয়ানমার সীমান্তের ঘুমধুম ইউনিয়নের তুমব্রু কোনার পাড়া শূণ্য রেখায় আশ্রিত রোহিঙ্গা পল্লী ঘুরে দেখেন এলিস ওয়েলস। সেখানে বসবাসরত বেশ কয়েকজন রোহিঙ্গার সাথে কথা বলে তাদের সুখ দুঃখের কথা জানতে চেয়েছেন বলে কোনার পাড়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পের মাঝি দিল মোহাম্মদ জানিয়েছেন। এছাড়াও এলিস ওয়েলস রোহিঙ্গা ক্যাম্পে বিভিন্ন আর্ন্তজাতিক সেবা সংস্থার কার্যক্রম পরিদর্শন করে সেখানে দায়ীত্বরত কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলেন।
উল্লেখ্য যে, গত বছরের ২৫ আগষ্টের পর থেকে মিয়ানমার সামরিক জান্তার জাতিগত নিধনের হাত থেকে প্রান বাঁচাতে প্রায় ৮ লক্ষাধিক রোহিঙ্গা সীমান্ত অতিক্রম করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মানবিকতায় উখিয়া টেকনাফের প্রায় ৩০ টি ক্যাম্পে আশ্রয় নেয়।

Share this post

scroll to top