উখিয়ায় জবরদখলীয় কোটি টাকার সম্পত্তি উদ্ধার নিয়ে দুপক্ষ মুখোমুখি

download-5.jpg

ষ্টাফ রিপোর্টার উখিয়া ::

উখিয়ায় দলিলমূলে সত্ববান দুপক্ষের মধ্যে মতানৈক্যের জের ধরে যুগযুগ পরিতাক্তবস্থায় পড়ে থাকা কোটি টাকার সম্পত্তি উদ্ধারের ঘটনা নিয়ে জবরদখলকারী ও সত্ববান মালিক পক্ষের মধ্যে দেখা দিয়েছে তুমুল উত্তেজনা। এঘটনা নিয়ে মালিক পক্ষ তার সাড়ে ৩ কানি জমি উদ্ধারে আইনি সহযোগিতা চেয়ে উখিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নিকট লিখিত অভিযোগ করেছে।
ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে স্থানীয়দের সাথে কথা বলে জানা যায়, জমির প্রকৃত মালিক মুর্তাজা আকতার তুফা তার সত্ববান কোটি টাকার সম্পত্তি আয়ত্বে আনতে সক্ষম না হওয়ায় ৯/২/২০১৬ ইং তারিখে তার স্বামী হাজী মোঃ আলীর ছেলে মোঃ ইসমাঈলকে ১৮৪ নাম্বার হেবামুলে রেজিঃ সম্পাদনের পর ১৫/৩/২০১৬ইং তারিখে বিএস ৩৫৭০ নাম্বার সৃজিত নামজারি মূলে মোঃ ইসমাঈল জমির মালিকপ্রাপ্ত হন। উক্ত জমি উদ্ধারে মোঃ ইসমাঈল বেশ কয়েকবার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়ে অবৈধ দখলদারদের হাত থেকে তার সম্পত্তি উদ্ধার করার জন্য গত ৯/৭/২০১৮ইং তারিখে উখিয়া সাব রেজিষ্ট্রার অফিসে ৯০৩/১৮ দলিলমূলে অপ্রত্যাহার যোগ্য পাওয়ার অব এ্যাটর্নি দিয়ে জমির মালিক হিসাবে আইনগত প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে উক্ত জমি দখলমুক্ত করার জন্য ফলিয়াপাড়া গ্রামের মৃত বদিউর রহমান চৌধুরীর ছেলে আমিনুল হক চৌধুরীকে ক্ষমতা প্রদান ও জমির মালিকগণ্য করে চুক্তিবদ্ধ হন। পাওয়ার অব এ্যাটর্নিমূলে জমির মালিক আমিনুল হক চৌধুরী জানান, ২৯ অক্টোবর তার জমিতে অবৈধ ভাবে ব্যবসায়ীরত ২৭টি দোকান মালিককে তার সাথে নতুন করে চুক্তিবদ্ধ হওয়ার কথা বললে ব্যবসায়ীরা বেআইনি জনতাঘটন করে তার উপর হামলার চেষ্টা করে। পরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নিকট জবরদখলকারী ব্যবসায়ীরা একটি বানোয়াট অভিযোগ প্রদান করেন। ইউএনও জানান, ঘটনাটি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য সহকারী কমিশনার ভুমিকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

Share this post

scroll to top