উখিয়ায় এনজিও সংস্থা মুক্তির সহায়তা সুবিধা বঞ্চিত নারীদের বিক্ষোভ

1.jpg

কায়সার হামিদ মানিক উখিয়া ::

রোহিঙ্গা অধ্যুষিত এলাকায় সার্বিক ভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হতদরিদ্রদের তালিকাভুক্ত ১২০ জন সুবিধাভোগী নারী থেকে ৮০ জন তালিকাভুক্ত নারীকে বাদ দেওয়ার ঘটনা নিয়ে উখিয়ার কুতুপালং পিএফ পাড়া গ্রামের দুস্ত মহিলারা বিক্ষোভ প্রদর্শন করেছে। শনিবার বিকাল ৪ টার দিকে বিক্ষোভ সমাবেশে সুবিধা বঞ্চিত ওই নারীরা পূর্বের তালিকামত সহায়তা প্রদানের দাবী জানান।
ঘটনাস্থল পিএফ পাড়া ও হাজম্মার রাস্তার মাথা গ্রামে গিয়ে বিক্ষোভ প্রদর্শনরত ওই নারীদের সাথে কথা বলে জানা যায়, এনজিও সংস্থা মুক্তি রোহিঙ্গায় ক্ষতিগ্রস্ত হতদরিদ্র ১২০ জন নারীর তালিকা করে গত ৬ মাস আগে প্রতিজনকে দুই কিস্তিতে ৮ হাজার টাকা করে প্রদান করেন। অনুরূপ গত বৃহস্পতিবার মুক্তি এনজিও সংস্থার ৭ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল পিএফ পাড়া ও হাজম্মার রাস্তা এলাকা পরিদর্শন করে দুস্ত ও অতিদরিদ্রদের যাছাই বাছাই করে ১২০ জন থেকে ৮০ জন বাদ দিয়ে ৪০ জনের একটি তালিকা প্রনয়ন করলে এলাকায় তুলকালাম সৃষ্টি হয়। পি এফ পাড়া গ্রামের সুবিধাভোগী একজন নারী দুলাল বড়–য়ার স্ত্রী মানিকপ্রতি বড়–য়া(৩৫) সাংবাদিকদের অভিযোগ করে জানান, এলাকার কথিপয় দালাল চক্র কর্তৃক প্রভাবিত হয়ে এনজিও কর্মীরা ৮০ জন হতদরিদ্র নারীকে স্বজন প্রীতির আশ্রয় নিয়ে বাদ দিয়েছে। এঘটনা অস্বীকার করে মুক্তির উপজেলা কো-অর্ডিনেটর সরওয়ার কামাল জোনায়েদ ও প্রোগ্রাম কো- অর্ডিনেটর মোঃ আকবর জানান, তাদের বরাদ্ধ কম থাকায় এবার ৪০ জন নারীকে সহায়তা প্রদানের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। তারা আরো বলেন, বর্তমানে তারা এনজিও সংস্থা মুক্তির বরাদ্ধকৃত অর্থ বিতরন করছে। ক্রমান্বয়ে এনজিও সংস্থা ইকো, পি আর এন, ডিএফ আই ই ডিসহ আরো ৩ টি সংস্থা থেকে সহায়তা প্রদান করা হবে। হতদরিদ্র এসব নারীরা যাতে প্রাপ্ত অর্থ দিয়ে বিভিন্ন খাতে বিনিয়োগের মাধ্যমে নিজেরাই স্বাভলম্বী হতে পারে।

Share this post

scroll to top