উখিয়ায় এনজিও কর্মী ধর্ষিত

images.jpg

উখিয়া ক্রাইম নিউজ ডেস্ক::

উখিয়ার কুতুপালং ১১ নং ক্যাম্পে সেভ দ্যা সিলড্রেন নামক একটি এনজিও সংস্থায় কর্মরত তছলিমা বেগম (১৭) কে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষন করার দায়ে তছলিমার মাতা নাইক্ষ্যংছড়ি জারালিয়ারছুড়ি গ্রামের মোঃ তৈয়বের স্ত্রী হালিমা বেগম বাদী হয়ে বৃহস্পতিবার সকালে উখিয়া থানায় ধর্ষক ইমরান হোসেন সহ ৪ জনকে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করেছে। মামলার সূত্রে জানা যায়, এনজিও কর্মী তছলিমা বালুখালী পশ্চিম পাড়াস্থ মকবুলের ভাড়া বাসায় থেকে ক্যাম্পে দায়িত্ব পালন করে আসছিল। ধর্ষিতার মাতা হালিমা সাংবাদিকদের জানান, বালুখালী পশ্চিম পাড়া দিদার হোসনের ছেলে ইমরান হোসেন (২৪) তার মেয়েকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে অনৈতিক কাজে লিপ্ত হতে বাধ্য করে। এভাবে বেশ কিছু দিন কেটে যাওয়ার পর তার মেয়েকে আনুষ্টানিক ভাবে ও ইসলামী শরিয়ামতে বিয়ে করার জন্য চাপ প্রয়োগ করলে লম্পট ইমরান তছলিমাকে বিয়ে করতে অপরাগতা প্রকাশ করেন। উখিয়া থানা অফিসার ইনচার্জ মোঃ আবুল খায়ের জানান, ইমরানকে আইনের আওতায় আনার জন্য পুলিশকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

Share this post

scroll to top