দলীয় মনোনয়ন পেলে মাদক ও দুর্ণীতিমুক্ত সমাজবিনির্মানে সচেষ্ট হবেন

unnamed-file.jpg

উখিয়া ক্রাইম নিউজ ডেস্ক::

আওয়ামীলীগের ত্যাগী ও পরিক্ষিত, নিস্বার্থবান নেতা আবুল মন্সুর চৌধুরী বলেছেন, তিনি ১৯৭০ সাল থেকে আওয়ামী রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত হয়েছেন। ১৯৭৮ সাল থেকে ১৯৮২ সাল পর্যন্ত কক্সবাজার জেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদকের দায়ীত্বপালন করেছেন। ১৯৮৫ থেকে ১৯৯২ সাল পর্যন্ত আওয়ামীলীগের দুর্দীনে মাঠ ত্যাগ করেননি। উপরোন্ত বিভিন্ন সমস্যার মোকাবেলা করে নেতা কর্মীদের সক্রিয় থাকার অনুপ্রেরনা যুগিয়েছেন। দলীয় মনোনয়ন পেলে মাদক ও দুর্নীতিমুক্ত সমাজ বিনির্মানে সচেষ্ট হবেন বলে তার প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন। বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টায় উখিয়া প্রেসক্লাবে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় কালে আওয়ামীলীগের এ বর্ষিয়ান রাজনীতিবিদ জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি আবুল মন্সুর চৌধুরী আরো বলেন, ১৯৭০ থেকে এ পর্যন্ত তিনি বেশ কয়েকটি স্থানীয় নির্বাচনে অংশ গ্রহন করেছেন। কিন্তু ভোটের মাঠে দুর্বৃত্তায়নের কারনে তিনি সফলকাম হতে পারেননি। ততাপিও তিনি দলের সাথে বেঈমানি করেননি। দল তাকে মনোনয়ন দিলেও খুশি আর না দিলেও দলের সাথে অভিমান করার কোন অভিলাস তার নেই। যেহেতু, রাজনীতির মাধ্যমে তিনি কোন দিন বা কোন ভাবে অবৈধ সম্পদ অর্জন করেননি। প্রভাব বিস্তার করে সাধারন মানুষকে হয়রানি করে কালো টাকা আয় করার অভিপ্রায় তার নেই। তিনি তার রাজনীতি জীবনে শেষ মুহুর্তে এসে প্রধানমন্ত্রী ও জননেত্রী শেখ হাসিনার কাছে আকুল আবেদন জানিয়ে বলেন, উখিয়া উপজেলায় আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে একজন স্বচ্ছ, পরিচ্ছন্ন ও ত্যাগী নেতাকে মনোনয়ন দেওয়া হোক। যাতে আওয়ামীলীগের তৃনমুল পর্যায়ের নেতাকর্মীরা আবারো চাঙ্গা হয়ে আওয়ামী রাজনীতির উন্নয়নে ও প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নে সফলকাম হওয়া যায়। সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময়কালে একজন সাংবাদিক বান্ধব হিসাবে তার রাজনৈতিক জীবনের কিছু কথা তোলে ধরার জন্য তিনি উদাত্ত আহবান জানান। এসময় উপস্থিত ছিলেন, উখিয়া প্রেসক্লাবের সভাপতি সরওয়ার আলম শাহিন, রফিক উদ্দিন বাবুল, রফিকুল ইসলাম, নুর মোহাম্মদ সিকদার, মাহমুদুল হক বাবুল, গফুর মিয়া চৌধুরী, হানিফ আজাদ, হুমায়ুন কবির জুসান, শফিকুল ইসলাম আজাদ, শ,ম, গফুর, কায়সার হামিদ মানিকসহ সকল সাংবাদিক বৃন্ধ উপস্থিত ছিলেন।

Share this post

scroll to top