সংবাদ শিরোনাম
উখিয়ার জামতলী শফি উল্লাহ কাটা ক্যাম্প বাজারের খাস কালেকশনের নামে…থাইংখালীতে সরওয়ারের নেতৃত্বে সরকারি বনভুমিতে নির্মিত হচ্ছে স্থাপনামানবপাচারকারী জালাল জুতার মালা ও কোদাল দিয়ে মাথার চুল উপড়িয়ে…থাইংখালীতে সরওয়ারের নেতৃত্বে সরকারি বনভুমিতে নির্মিত হচ্ছে স্থাপনাকক্সবাজারে গণবদলির পর নতুন ওসি-এসআইসহ ৩৭ জনকে পোস্টিংকক্সবাজার থেকে শীর্ষ কর্মকর্তাসহ পুলিশের ১৩৪৭ সদস্য বদলিরোহিঙ্গাদের বাংলাদেশী জাতীয় পত্র বানিয়ে দিচ্ছে একটি সিন্ডিকেট, জড়িত শিক্ষক…নাফ নদীতে গোলাগুলি করে ৫০ হাজার ইয়াবা উদ্ধারউখিয়ায় ইয়াবাসহ দুই রোহিঙ্গা আটকউখিয়ার চাঞ্চল্যকর ফোর মার্ডার ঘটনার এক বছর

উখিয়ার বটতলীতে ইয়াবা সেবীর মৃত্যু নিয়ে নিরহ এক ব্যক্তিকে ফাসাঁনোর চেষ্টা

উখিয়া ক্রাইম নিউজ ডেস্ক::

উখিয়ার ক্রাইম স্পট পালংখালীর বটতলী ইয়াবা পার্টনারের দোকানে কাটাখালীর ইয়াবা সেবী ও পাচারকারী সোহেলের মৃত্যু নিয়ে ঘোলা পানিতে মাছ শিকারের অপচেষ্টা চালানো হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। সামাজিক আধিপাত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে এলাকার একটি মহল হোয়াইক্যং ইউনিয়ন জাতীয় পার্টির সভাপতি ও ঠিকাদার মমতাজ মিয়াকে উক্ত মামলায় আসামী করায় গভীর ক্ষোভ ও নিন্দা জানিয়ে বিবৃতি প্রদান করেছে উখিয়া উপজেলা জাতীয় পার্টির নেতাকর্মীরা।
সরেজমিন ঘটনাস্থল বটতলী এলাকা ঘুরে বিভিন্ন লোকজনের সাথে কথা বলে জানতে চাওয়া হলে তারা ইয়াবা সেবন করে সোহেলের মৃত্যুর কথা স্বীকার করলেও কে বা কারা তার সাথে ছিল তা জানাতে অপারগতা প্রকাশ করেন। সোহেলের মৃত্যুর ঘটনাস্থল হারুন রশিদের দোকানে গিয়ে দেখা যায় দোকান তালাবদ্ধ। তবে বটতলী গ্রামের প্রবাসী রুহুল কাদের জানায়, সে সোহেলের জানাযায় শরীক হয়ে ছিলেন। সেখানে লোকমুখে শুনেছেন অতিরিক্ত ইয়াবা সেবনে সোহেল মারা গেছে। স্থানীয় ইউপি সদস্য সুলতান মেম্বার বিস্তারিত জানাতে অপারগতা প্রকাশ করলেও কিছু তথ্য উপাত্ত তুলে ধরে বলেন, ২৮ জানুয়ারী রাতে ছৈয়দ নুরের দোকানে সোহেল অবস্থান কালে অতিরিক্ত ইয়াবা সেবন করে মারা গেছে বলে সে শুনেছেন। এসময় তাকে এমএসএফ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক সোহেলকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। এব্যাপারে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এস আই আলিমুর রাজী জানান, সোহেল হত্যা মামলায় দুজনকে আটক করা হয়েছে।
উখিয়া উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি ও উপজেলা ঠিকাদারী সংস্থার সভাপতি অধ্যাপক নুরুল আমিন সিকদার ভুট্টো এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে বলেন, হোয়াইক্যং কাটাখালী গ্রামের মমতাজ মিয়া ঠিকাদারী ব্যবসার পাশাপাশি জাতীয় পার্টির রাজনীতিতে সক্রিয়। তাকে এ হত্যা মামলায় জড়িত করার নৈপথ্যে সামাজিক আধিপাত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে একটি প্রভাবশালী মহলের ইন্দন রয়েছে বলে দাবী করেন। তিনি উক্ত হত্যা মামলা সুষ্ঠু তদন্ত পূর্বক প্রকৃত হত্যাকারীদের গ্রেপ্তার ও নিরহ ব্যক্তিকে মামলা থেকে অব্যাহতি দেওয়ার জন্য পুলিশ প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

Share this post

scroll to top