দলমত, জাতিধর্ম, বর্ণ নির্বিশেষে সকলের দোয়া চাই

1-1.jpg

মাহমুদুল হক বাবুল উখিয়া ::

উখিয়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে মনোনয়ন পত্র দাখিল পরবর্তী সংক্ষিপ্ত পথ সভায় আওয়ামীলীগের একক প্রার্থী অধ্যক্ষ হামিদুল হক চৌধুরী বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাকে মনোনয়ন দিয়েছে। তার এ বিরল সম্মান টুকু অক্ষুন্ন রাখতে দলমত, জাতিধর্ম, বর্ণ নির্বিশেষে সকলের দোয়া চাই যেন আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে জয়ী হয়ে উখিয়ার গণমানুষের মুখে হাসি ফুটাতে পারি। রাজনৈতিক জীবনে অন্তিম সময়ে প্রধানমন্ত্রী আমাকে যে সম্মান টুকু দিয়েছেন সে সম্মান টুকু ধরে রাখতে আপনারা আমার পাশে থাকবেন। মঙ্গলবার বিকেল ৪টার দিকে উখিয়া ষ্টেশন চত্বরে শতশত নেতাকর্মীর অনুরোধে তিনি সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখতে গিয়ে আরো বলেন, রাজনৈতিক জীবনে নিজের জন্য কিছুই করতে পারিনি। ততাপিও উখিয়ায় একটি মহিলা কলেজ প্রতিষ্টা করে মেয়েদের উচ্চ শিক্ষায় শিক্ষিত করে তোলার জন্য যে টুকু প্রয়োজন ছিল তাও প্রধানমন্ত্রীর অবদান অনস্বিকার্য। তিনি না হলে এ কলেজ সরকারি করনের কোন সম্ভাবনা ছিল না। রাজনৈতিক জীবনে যতটুকু আত্নত্যাগ করেছি তাও আওয়ামীলীগ ও সাধারন মানুষের জন্য। আল্লাহপাক রাব্বুল আল আমিন আমাকে শেষ বারেরমত একটি সুযোগ করে দিয়েছে উখিয়ার মানুষের সেবা করার জন্য। সে সুযোগ টুকু আমি যেন কাজে লাগিয়ে এ উপজেলার নির্যাতিত নিপীড়িত সহ্যয় সম্ভলহীন মানুষের উপকারে আসতে পারি সে জন্য আপনারা আমার জন্য প্রান ভরে দোয়া করবেন। আমি অসুস্থ, ততাপিও মানুষ আমাকে ছাড়ছেনা। আমি চেয়েছিলাম নির্বাচন থেকে দুরে থাকতে। আল্লার কি রহমত আমাকে আবারো মানুষের সেবায় এগিয়ে আসতে হয়েছে। অনেকেই আত্নসমালোচনা করে বলছেন, তাদের পরিবারের মধ্যে দ্বিধাদ্বন্ধ ও মতবিরোধ রয়েছে। আমি হলফ করে বলতে পারি, মরহুম বদিউর রহমান সিকদারের পরিবারে কোন রকম মতবিরোধ নেই। একটি মহল বিশেষের ইন্ধনে আমাদের পারিবারিক বন্ধন ছিন্ন করার মহা পরিকল্পনা নিয়ে মাঠে নেমেছে। কিন্তু তাদের ওই চক্রান্ত কোন দিন ফায়দা হাসিল করতে পারবেনা। সভায় আমার পক্ষে নির্বাচনী ঝাপিয়ে পড়বে ইনশাহ আল্লাহ। অধ্যক্ষ হামিদুল হক চৌধুরীর আবেগ প্রবন এ বক্তব্যের পরে করতালিতে মুখরিত হয়ে উঠে পথ সভা প্রাঙ্গন।

Share this post

scroll to top