জালিয়াপালংয়ে জামায়াত শিবিরের ক্যাডার বাহিনীর হাতে ছাত্রলীগের ত্রান বিতরনকারীরা জিম্মি

o-1.jpg

উখিয়া ক্রাইম নিউজ ডেস্ক::

সারা বিশ্বে মহামারি করোনা আতংকে মানুষ এক প্রকার জিম্মি দষায় জীবন যাপন করে আসলেও তাদের খবর কেউ রাখেনা।
সরজমিন সোনাইছড়ি এলাকা ঘুরে ও বেশ কয়েকজন লোকের সাথে কথা বলে জানা যায়, প্রয়োজনের তাগিদে ও পেটের তাড়নায় হতদরিদ্র পরিবারের জনগোষ্টীরা ঘর থেকে বের হলেও খাদ্য সামগ্রী যোগান দেওয়া তাদের পক্ষে কঠিন হয়ে উঠেছে বলে ভুক্তভোগী এজাহার মিয়া কান্না জড়িত কন্ঠে প্রতিবেদককে বিষয়টি জানান। হতদরিদ্রদের করোন পরিনতি দেখে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ জালিয়াপালং ইউনিয়ন শাখার সাবেক সভাপতি নুরুল আবছার নান্নুর নেতৃত্বে ছাত্রলীগ নেতা কর্মীরা হতদরিদ্র পরিবার গুলোকে সু- রক্ষা রাখার লক্ষে বসত ভিঠায়, মসজিদে ব্লেসিং পাউডার ছিটিয়ে দেওয়াসহ ও তাদেরকে চিহ্নিত করে ত্রান সামগ্রী বিতরনের প্রস্তুতি কালে ইউনিয়নের  সোনাইছড়ি এলাকার জামায়াত শিবিরের নাইন ষ্টার এসোসিয়েশন নামের রাষ্ট্র বিরোধী সংগঠনের শীর্ষ সন্ত্রাসী ও ক্যাডার বাহিনীর প্রধান ছৈয়দ আলমের ছেলে দেলোয়ার হোসাইন, তার চেইন অব কমান্ড মোবারক হোসাইন, মোশারফ হোসাইন, ইমরান হোসাইন, সাইফুদ্দীন, রিদুওয়ান হোসাইন, দেলোয়ার হোসাইন, মোঃ রাশেল ও হোসন শরিফসহ শীর্ষরা ত্রান কার্যক্রমে বাধা, ছাত্রলীগ নেতাকে কয়েক দিন ধরে হত্যার হুমকি ধমকি ও ভয়ভীতি প্রদর্শন করে ক্ষান্ত না হয়ে ফের রোববার রাত ৮ টার দিকে নান্নু বাড়ী ফেরার পথে গতিরোধ করে উল্লেখিত জামায়াত শিবিরের ক্যাডার বাহিনীর অস্ত্রধারীরা তাকে এলোপাতাড়ি হামলা চালিয়ে গুরুতর জখম করে। শোর চিৎকারে লোকজন এগিয়ে এসে অস্ত্রধারীদের কবল থেকে তাকে উদ্ধার করে বলে আহত ছাত্রলীগ নেতা নান্নু প্রতিবেদককে বিষয়টি নিশ্চিত করেন।
নান্নু অভিযোগ করে বলেন, শিবিরের অস্ত্রধারীরা আমাকে হামলা চালিয়ে এলাকার একটি মহলের ইন্ধনে ফ্লীম ষ্টাইলে ঘটনাটি ভীন্নখ্যাতে প্রবাহিত করার চেষ্টায় মরিয়া হয়ে উঠেছে। এব্যাপারে নান্নু বাদী হয়ে ৯ জনকে আসামী করে উখিয়া থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন বলে তিনি জানান।

Share this post

scroll to top