মরিচ্যা পাতাবাড়ীতে রোহিঙ্গা নারী ইয়াছমিনকে নিয়ে যত কাহিনী

images.jpg

উখিয়া ক্রাইম নিউজ ডেস্ক::

উখিয়ার পূর্ব হলদিয়া পাতাবাড়ী এলাকার রশিদ আহম্মদের স্ত্রী জাহেদা বেগম এর নেতৃত্বে জাহাঙ্গীর আলম, আবু ছালেহা ও ফরিদ আলমের ছেলে সোহেলসহ শীর্ষরা দীর্ঘ দিন ধরে কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে সিন্ডিকেটের মাধ্যমে অল্প খরচে মালেশিয়া পাচার ও বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে সুন্দরী যুবতীদের পাতাবাড়ী এলাকায় নিয়ে এসে তাদেরকে জাহেদার বাড়ীরমত কয়েকটি বাড়ীতে আটকিয়ে যৌন নির্যাতন চালিয়ে আসছে বলে এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে। এব্যাপারে জাহেদা বলেন, কুতুপালং ক্যাম্পের ইয়াছমিন নামের এক রোহিঙ্গা নারী আমার বাড়ীতে ৫ দিন ধরে জমা রেখেছে স্থানীয় জাহাঙ্গীর। তবে কেন রেখেছে তা জাহাঙ্গীর ও সোহেল জানে। ঘটনার মূল হোতা সোহেল বলেন, রোহিঙ্গা নারী তাকে দেখে পাগল হয়ে গেছে তাই তাকে নিয়ে আসছি। স্থানীয় ইউপি সদস্য বাদশা মেম্বার ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেন এবং রোহিঙ্গা নারী ইয়াছমিনকে ক্যাম্পে ফেরত পাঠানোর জন্য নির্দেশ প্রদান করলেও বখাটে যুবক সোহেল গংরা তা অমান্য করে বলে তিনি জানান।

Share this post

scroll to top