বালুখালীতে ফোরকান বাহিনীর নেতৃত্বে জমি দখলের চেষ্টা – আহত ২

images-1.jpg

উখিয়া ক্রাইম নিউজ ডেস্ক::

উখিয়ার ক্রাইম জোন নামে খ্যাত পালংখালী ইউনিয়নের বালুখালী এলাকায় ফোরকান বাহিনীর নেতৃত্বে জমি দখলের চেষ্টাকালে হামলায় ২ জন গুরুতর আহত হয়েছে। ২১ জুন রোববার ভোরে ঘটনাটি ঘটেছে।
সরজমিন ঘটনাস্থল ও এলাকার বেশ কয়েকজন লোকের সাথে কথা বলে জানা গেছে, মায়ানমার নাসাকা ও জান্তা বাহিনীর বর্বর নির্যাতনের শিকার হয়ে এদেশে অনুপ্রবেশ করে লাখ লাখ রোহিঙ্গা। উক্ত অনুপ্রবেশকারী রোহিঙ্গাকে বাংলাদেশের ভুখন্ডে আশ্রয় দিয়ে একটি বিরল দৃষ্টান্ত স্থাপন করে বিশ^ মানবতার মা হিসাবে স্বীকৃতি লাভ করেছেন বাংলাদেশ সরকারের সফল প্রধানমন্ত্রী দেশরতœ শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রীর উক্ত সুনামকে ধ্বংস করার জন্য বিএনপি জামায়াতের ক্যাডার বাহিনীরা এখনো মরিয়া হয়ে উঠেছে বলে অসংখ্য জনশ্রুতি রয়েছে।
গত রোববার ভোরে বালুখালী গ্রামের মৃত খলিলুর রহমানের ছেলে আজম উল্লাহ(৯১) এর ক্রয়কৃত ও দীর্ঘ ৭০ বছরের ভোগদখলীয় জমিটি পূর্ব পরিকল্পিত ভাবে নকশা তৈরি করে একই এলাকার মমতাজ মিয়ার ছেলে বিএনপি জামায়াতের শীর্ষ সন্ত্রাসী ও একাধিক মামলার আসামী ফোরকানের নেতৃত্বে আরকান মিয়া (২৮), সাইফুল ইসলাম (২৬), মামুন মিয়া (২২),সোনা মিয়া (৩২), নুর হোসেন বর্মাইয়া (৩৫) ও মমতাজ মিয়াসহ শীর্ষরা ধারালো অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে হতদরিদ্র অজম উল্লার দীর্ঘ ৭০ বছরের ভোগ দখলীয় জমিটি জোরপূর্বক স্থাপনা নির্মান করে দখলে নেওয়ার সময় খবর পেয়ে নেজাম উদ্দিন (২৫) ও হাসিনা আক্তার (২৬) বাধা প্রদান করিলে তাদেরকেও হামলা চালিয়ে গুরুতর জখম করে মাটিতে ফেলেদে বলে ভুক্তভোগীরা জানিয়েছেন। এ সময় শোর চিৎকারে লোকজন এগিয়ে এসে অস্ত্রধারীদের কবল থেকে আহতদের উদ্ধার করে উখিয়া হাসপাতালে ভর্তি করেন। কর্তব্যরত চিকিৎসক আহতরা সংখ্যামুক্ত নয় বলে প্রতিবেদককে জানিয়েছেন।
ভুক্তভোগী আজম উল্লাহ জানান, আমার দীর্ঘ ৭০ বছরের ভোগদখলীয় জমিটি জোরপূর্বক দখলে নিয়ে নিচ্ছে বলে তিনি জানান। এব্যাপারে, ৭ জনকে আসামী করে উখিয়া থানায় একটি এজাহার দায়ের করেছে।

Share this post

scroll to top