থাইংখালীতে সরওয়ারের নেতৃত্বে সরকারি বনভুমিতে নির্মিত হচ্ছে স্থাপনা

উখিয়া ক্রাইম নিউজ ডেস্ক::

সরকারি বিধিনিষেধ উপেক্ষা, ক্ষমতার দাপট দেখিয়ে ও থাইংখালী বিট কর্মকর্তা শহিদুল ইসলামকে মোটা অংকের টাকায় ম্যানেজ করে উখিয়ার পালংখালী ইউনিয়নের থাইংখালী তাজনিমারখোল ক্যাম্প ১৩ এর কাঠালতলী বাজার এলাকায় সরকারি কোটিকোটি টাকার বনভুমি দখল করে দোকানপাট স্থাপনার মহোৎসব চালিয়ে গেলেও খোদ বন কর্মকর্তা রয়েছে নিরব দর্শকের ভুমিকায় বলে জানা গেছে।
সরজমিন ঘটনাস্থল ঘুরে জানা যায়, তাজনিমারখোলা গ্রামের নজু মিয়ার ছেলে এলাকার চিহ্নিত ভুমিদস্যু সরওয়ার একটি বৃহত্তর সিন্ডিকেট তৈরি করে স্থানীয় বনবিভাগকে কন্ট্রোলে রেখে একের পর এক সরকারি বনভুমি গ্রাস করে দোকানপাট নির্মান করে হাতিয়ে নিচ্ছে লাখ লাখ টাকা। কিন্তু দেখার কেউ নেই। রক্ষক যদি বক্ষকের ভুমিকায় দায়িত্ব পালন করে তা হলে এ বন সম্পদ রক্ষা করবে কে?
স্থানীয় আবুল শমা জানান, বন বিভাগের কর্মকর্তাদের টাকা দিলে বিশ^জয় করা যায়। থাইংখালী বনবিটে বন বিভাগের জায়গা প্রায় শূণ্যের কোটায় পৌছে গেছে। বাকী যা আছে তাও থাকবেনা। অতি শিঘ্রই বিট কর্মকর্তা শহিদুল ইসলামের অনিয়ম ও দুর্ণীতি তদন্ত করে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য বিভাগীয় বন কর্মকর্তার হস্তক্ষেপ কামনা করছি। এব্যাপারে বিট কর্মকর্তা শহিদুল ইসলামের নিকট বারবার ফোন করেও তিনি ফোন রিসিভ না করায় বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।

Share this post

scroll to top