কক্সবাজার সড়কে বাস ডাকাতির ঘটনায় গ্রেপ্তার ৬

cox-2011300842.jpg

উখিয়া ক্রাইম নিউজ ডেস্ক::

চট্টগ্রাম-কক্সবাজার সড়কের ফাঁসিয়াখালী এলাকায় যাত্রী বেসে সৌদিয়া পরিবহনের একটি বাসে ডাকাতির ঘটনায় ৬ ডাকাতকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব।

সোমবার (৩০ নভেম্বর) দুপুরে চট্টগ্রামের চান্দগাঁও এলাকায় র‌্যাব-৭ এর সিপিসি-৩ দপ্তরে এক প্রেস ব্রিফিং এ তথ‌্য জানান র‌্যাব-৭ এর অধিনায়ক লে. কর্নেল মো. মশিউর রহমান জুয়েল।

গ্রেপ্তাররা হলেন—মো. ইয়াহিয়া প্রকাশ জয়নাল (২৬), ছলিম উল্লাহ (৩৩), ছাবের আহমদ (২৯), আবুল কালাম (৩০), শাহ আমান প্রকাশ বাটু (২৮) ও মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ (২৫)।

প্রেস ব্রিফিং-এ র‌্যাব অধিনায়ক জানান, গত ২৭ নভেম্বর রাতে চট্টগ্রাম থেকে কক্সবাজার অভিমুখী সৌদিয়া পরিবহনের এক বাসে কক্সবাজারের ফাঁসিয়াখালী এলাকায় ডাকাতির ঘটনা ঘটে। যাত্রী বেশে বাসে থাকা ডাকাতরা বাসের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে যাত্রীদের সর্বস্ব লুট করে নেয়। এই সময় ডাকাতরা দুইজন যাত্রীকে গুলিবিদ্ধ ও একজনকে কুপিয়ে আহত করে। এই ডাকাতির ঘটনায় ২৮ নভেম্বর চকরিয়া থানায় মামলা দায়ের করা হলে র‌্যাব-৭ ছায়া তদন্ত শুরু করে এবং ডাকাতদলকে শনাক্ত করতে সক্ষম হয়।

পরে রোববার (২৯ নভেম্বর) দুপুরে ডাকাতির প্রধান মো. ইয়াহিয়া প্রকাশ জয়নালকে গ্রেপ্তার করা হয়। তার কাছ থেকে ডাকাতির কাজে ব্যবহৃত একটি ওয়ান শুটার গান, এক রাউন্ড গুলি ও রামদা জব্দ করে র‌্যাব।

পরে তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে কক্সবাজার সদর এলাকায় অভিযান চালিয়ে ছলিম উল্লাহ, ছাবের আহমদ, আবুল কালাম ও শাহ আমান প্রকাশ বাটুকে গ্রেপ্তার করা হয়। তাদের কাছ থেকে লুট হওয়া ২০টি মোবাইল, এক জোড়া স্বর্ণের দুল, নগদ টাকা ও বিদেশি মুদ্রা জব্দ করা হয়। এরপর তাদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে মহেশখালী থেকে মোহাম্মদ আব্দুল্লাহকে গ্রেপ্তার করা হয়। এই ডাকাতদলের আরও এক সদস্য বর্তমানে পলাতক রয়েছে । তাকে গ্রেপ্তারের চেষ্ঠা চলছে।

প্রেস ব্রিফিংয়ে র‌্যাব-৭ এর চান্দগাঁও ক্যাম্পের কোম্পানী কমান্ডার ফ্লাইট লেফটেন্যান্ট আলী আশরাফ তুষার, সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) মো. মাহমুদুল হাসান মামুন ও সহকারী পুলিশ সুপার মো. রকিবুল হাসানসহ র‌্যাব কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

Share this post

scroll to top